BREAKING NEWS

১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪৩০  মঙ্গলবার ৩০ মে ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

২০ দিন ধরে নিখোঁজ পাতিদার নেতা হার্দিক প্যাটেল, সরকারকে দায়ী করছেন স্ত্রী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 14, 2020 10:11 am|    Updated: February 14, 2020 10:13 am

Hardik Patel missing for last 20 days, claims wife Kinjal

হার্দিক প্যাটেল

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২৪ জানুয়ারি জেল থেকে বেরিয়ে ছিলেন। কিন্তু, তারপর থেকে খোঁজ মিলছে না গুজরাটের পাতিদার (Patidar) আন্দোলনের নেতা হার্দিক প্যাটেলের। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করা একটি ভিডিওতে এমনই দাবি করেছেন ওই কংগ্রেস নেতার স্ত্রী কিঞ্জল প্যাটেল।

তাঁর স্বামীকে গুজরাট প্রশাসনের তরফে টার্গেট করা হচ্ছে এই অভিযোগ জানিয়ে কিঞ্জল বলেন, ‘গত ২০ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন আমার স্বামী। তিনি কোথায় আছেন? কী করছেন? সেই বিষয়ে আমাদের কাছে কোনও খবর নেই। এই বিষয়টি আমাদের গভীরভাবে ব্যথা দিচ্ছে। আমরা চাই মানুষ আমাদের বিচ্ছেদের জ্বালা বুঝুক। এই বিষয়ে কিছু করুক।’

[আরও পড়ুন: ভারত-চিন যুদ্ধেই পরিণতি পায়নি রতন টাটার প্রেম, স্মৃতিচারণ শিল্পপতির ]

 

এরপরই গুজরাট সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে তিনি বলেন, ‘২০১৭ সালে এই সরকার আমাদের বলেছিল যে পাতিদারদের উপর থেকে সমস্ত মামলা তুলে নেওয়া হবে। তারপরও কেন তারা শুধুমাত্র হার্দিককেই টার্গেট করছে। কেন অন্য দু’জন পাতিদার নেতা, যাঁরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নিচ্ছে না সরকার। আসলে এই সরকার চায় না হার্দিক মানুষের সঙ্গে কথা বলুক এবং তাঁদের বিষয় নিয়ে আন্দোলন করুক।’

[আরও পড়ুন: প্রয়াত বিখ্যাত পরিবেশবিদ রাজেন্দ্র কুমার পাচৌরি ]

 

এমনিতে হার্দিককে প্রকাশ্যে দেখা না গেলেও সোশ্যাল মিডিয়াতে সক্রিয় রয়েছেন তিনি। গত ১১ তারিখ যেমন দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে জয়ের জন্য টুইট করে অভিনন্দন জানান তিনি। আর তার আগের দিন টুইট করে গুজরাট সরকার তাঁকে রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে জেলবন্দি করে রাখতে চাইছে বলেও অভিযোগ করেন।

টুইটে উল্লেখ করেন, ‘চার বছর আগে আমার নামে মিথ্যে মামলা দায়ের করেছিল গুজরাট পুলিশ। লোকসভা নির্বাচনের সময় আমার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলাগুলির বিষয়ে আমেদাবাদ পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসা করি। তিনি জানান, আমার বিরুদ্ধে কোনও মামলা নেই। কিন্তু, ১৫ দিন আগে বাড়িতে এসে আমাকে হেফাজতে নিতে চায় পুলিশ। তবে সেই সময়ে আমি বাড়ি ছিলাম না। বর্তমানে এই ধরনের মিথ্যে মামলার বিরুদ্ধে আমি হাই কোর্টে যে জামিনের আবেদন করেছিলাম তার শুনানি চলছে। এর পাশাপাশি আমার বিরুদ্ধে থাকা বেশ কয়েকটি জামিন অযোগ্য পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। কিছুদিন বাদেই গুজরাটে পঞ্চায়েত নির্বাচন হবে। তাই বিজেপি আমাকে জেলে রাখতে চাইছে। কিন্তু, আমিও বিজেপির বিরুদ্ধে ক্রমাগত লড়াই চালিয়ে যাব। খুব তাড়াতাড়ি আমাদের দেখা হবে, জয় হিন্দ।’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে