২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

উন্নাওয়ের পুনরাবৃত্তি! হাথরাস কাণ্ডে অভিযুক্তদের সমর্থনে সভা স্থানীয় বিজেপি নেতার

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 4, 2020 1:55 pm|    Updated: October 4, 2020 1:55 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাঠুয়ার কথা মনে আছে? উন্নাও? যেখানে ধর্ষণ এবং খুনের মতো নৃশংস অপরাধের অভিযুক্তদের সমর্থনেও মিছিল বেরিয়েছিল। সভা হয়েছিল। হাথরাসের (Hathras Gang Rape) ক্ষেত্রেও তার ব্যতিক্রম হল না। গণধর্ষণে অভিযুক্তদের সমর্থনে বড়সড় সভার আয়োজন করলেন স্থানীয় বিজেপি নেতা রাজবীর সিং পেহেলবান। যিনি কিনা একটা সময় বিজেপির টিকিটে বিধায়কও হয়েছেন। তাঁর বাড়িতেই অভিযুক্তদের ‘সুবিচারে’র দাবিতে এই সভাটির আয়োজন করা হয়েছিল। এমনটাই দাবি এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের।

উল্লেখ্য, হাথরাসের ঘটনায় উচ্চবর্ণের চার অভিযুক্তকে ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। এরা সকলেই তথাকথিত ‘উচ্চবর্ণে’র নাগরিক। রাজবীর সিং পেহেলবান (Rajveer Singh Pehelwan ) নামের স্থানীয় ওই বিজেপি (BJP) নেতার দাবি, উচ্চবর্ণের এই চার যুবককে মিথ্যা অভিযোগে ফাঁসানো হচ্ছে। উত্তরপ্রদেশ সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। ওই বিজেপি নেতা বলছেন, ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি এই সভার আয়োজন করেছেন। যেখানে হাজির ছিল সমাজের তথাকথিত উচ্চবর্ণের বহু মানুষ। এমনকী গ্রেপ্তার হওয়া চার অভিযুক্তের পরিবারও ওই বৈঠকে হাজির ছিল। মজার কথা হল, এই সভাটির আয়োজন করা হয়েছিল ওই বিজেপি নেতারই বাড়িতে।

[আরও পড়ুন: যোগীর রাজ্যে ফের দলিত নাবালিকার ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার, ধর্ষণের অভিযোগ পরিবারের]

ক্যামেরার সামনেই আয়োজকরা দাবি করেছেন, তাঁরা পুলিশকে জানিয়েই এই বৈঠক করেছেন। উচ্চবর্ণের চার অভিযুক্তকে ফাঁসানো হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে হওয়া অভিযোগের কোনও ভিত্তি নেই। সরকারের উপর চাপ সৃষ্টির চেষ্টা হচ্ছে। এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তের প্রয়োজন। মজার কথা হল, হাথরাসের স্থানীয় প্রশাসন শনিবার পর্যন্ত করোনার অজুহাতে ওই গ্রামে সংবাদমাধ্যমকে পর্যন্ত ঢুকতে দিচ্ছিল না। আজ এত বড় সভার অনুমতি দেওয়া হল কেন? তাও আবার অভিযুক্তদের সমর্থনে? ওই এলাকার জয়েন্ট ম্যাজিস্ট্রেট প্রেমপ্রকাশ মীনা অবশ্য দাবি করেছেন, এই বৈঠক সম্পর্কে কিছুই জানেন না তিনি। উল্লেখ্য, হাথরাসের ধর্ষকদের সমর্থনে মিছিল বা সভা এই প্রথম নয়। এর আগে গত শুক্রবার সবর্ণ-সমাজের বহু মানুষ ওই এলাকায় অভিযুক্তদের সমর্থনে জমায়েত করার চেষ্টা করেছিলেন। তাছাড়া যে বিজেপি নেতা আজ সভার আয়োজন করেছেন, তিনিই আগে বয়ান দিয়েছিলেন, যে ওই নির্যাতিতাকে নাকি তাঁর মা এবং ভাই-ই খুন করেছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement