Advertisement
Advertisement

নবরাত্রিতে বন্ধ রাখতে হবে মাংসের দোকান, হুঁশিয়ারি শিব সেনার

অন্তত ২০০ জন শিব সেনা কর্মী গুরুগ্রামের রাস্তায় নেমে মাংস বিক্রেতাদের সতর্ক করেন৷

Have to close meat shops in Navratri, Shiv Sena Warns in Gurugram
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:March 29, 2017 3:09 pm
  • Updated:March 29, 2017 3:09 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের পর এবার মাংস বিক্রির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করছেন হরিয়ানার শিব সেনা কর্মীরা৷ তাঁদের দাবি, নবরাত্রির সময় হরিয়ানায় সমস্ত মাংসের দোকান বন্ধ রাখতে হবে৷ এছাড়াও, প্রতি মঙ্গলবার মাংস বিক্রি করা চলবে না৷ আন্তর্জাতিক খাদ্য বিক্রি সংস্থা কেএফসি-সহ বিভিন্ন মাংসের দোকান ও হোটেলে এই নোটিস দিয়ে হুঁশিয়ারি দিয়েছে শিব সেনা কর্মীরা৷

অন্তত ২০০ জন শিব সেনা কর্মী গুরুগ্রামের রাস্তায় নেমে মাংস বিক্রেতাদের সতর্ক করেন৷ শিবসেনা কর্মী ঋতু রাজের কথায়, “যেসব হোটেল, ধাবা, খাবারের দোকান আমিষ খাবার বিক্রি করে, আমরা তাদের নোটিস দিয়ে নবরাত্রি উৎসবের ন’দিন মাংস বিক্রি করতে নিষেধ করেছি৷” শিবসেনা কর্মীদের এই নোটিস পেয়ে এখনও কোনও মাংস বিক্রেতা থানায় অভিযোগ দায়ের করেননি বলে গুরুগ্রাম পুলিশের সিপি জানিয়েছেন৷ তাঁর কথায়, শিবসেনা কর্মীরা জোর করে এমন কাজ করলে এবং তাঁদের বিরু‌দ্ধে অভিযোগ এলে পদক্ষেপ করা হবে৷

Advertisement

অন্যদিকে, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের দেখানো পথে ঝাড়খণ্ডের পর এবার বেআইনি কসাইখানার উপর লাগাম টানল আরও চার বিজেপি শাসিত রাজ্য। জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার থেকে রাজস্থান, উত্তরাখণ্ড, ছত্তিশগড় ও মধ্যপ্রদেশের অবৈধ কসাইখানাগুলি বন্ধ করে দিচ্ছে প্রশাসন।এপর্যন্ত হরিদ্বারে ৩টি ও রায়পুরে ১১টি মাংসের দোকান সিল করে দিয়েছে পুলিশ। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, জয়পুরে প্রায় ৪ হাজার বেআইনি মাংসের দোকানে তালা ঝুলিয়েছে প্রশাসন। যদিও মাংস বিক্রেতাদের অভিযোগ জয়পুর পুরসভা ২০১৬ সাল থেকেই তাদের লাইসেন্স পুনর্নবীকরণ করছে না। এছাড়াও তাদের দাবি বেশ কিছু বৈধ মাংসের দোকানও জোর করে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ