BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বন্যা দুর্গতদের জন্য পিঠ পেতে যুবক, ভাইরাল কেরলের ভিডিও

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: August 21, 2018 1:28 pm|    Updated: August 21, 2018 2:01 pm

HC orders CBSE schools to follow ‘No Homework’ rule

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভয়াবহ বন্যায় বিপর্যস্ত সমগ্র কেরল। উদ্ধারকার্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যাচ্ছে বানভাসি মহিলাদের রাবারের নৌকা পর্যন্ত পৌঁছাতে নিজের পিঠটাই পেতে দিয়েছেন যুবক। পিঠে পা দিয়েই মহিলারা নৌকাতে উঠছেন। ইতিমধ্যেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে। বিপদের দিনে অসহায় মহিলাদের সাহায্যে এভাবে এগিয়ে আসার জন্য যুবকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা। শেষপর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, মৃতের সংখ্যা ৪০০ ছাড়িয়েছে (সরকারি হিসেব)। সোমবারও উপদ্রুত এলাকা থেকে ৬০২ জন বাসিন্দাকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে বেশ কয়েকটি জায়গায় জল নেমে যাওয়ায় ত্রাণশিবির ছেড়ে বাড়িতে ফিরতে শুরু করেছেন বাসিন্দারা। জল জমে থাকায় ঘরদোরের বেহাল দশা। তাই সাফাইকার্য শুরু হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন রাজ্যবাসীর কাছে ঘরদোর পরিষ্কারের জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রশাসনকে। সেই সঙ্গে জল নেমে গেলে নানারকম রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে পারে। তা আটকাতে প্রয়োজনীয় ওষুধ ও চিকিৎসা সহায়তার বন্দোবস্তও করা হচ্ছে।

[বাঙালির রসনাতৃপ্তির ইতিহাসকে মুঠোবন্দি করতে মেনু কার্ডের সংগ্রহশালা]

এদিকে বিভিন্ন এলাকায় জল নামতে শুরু করতেই সংক্রমণের ভয়ে কাঁটা হয়ে রয়েছেন ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নেওয়া বাসিন্দারা। পরিসংখ্যান অনুযায়ী বন্যায় বাড়িঘর হারিয়ে ত্রাণশিবিরে আশ্রয় নেওয়া মানুষের সংখ্যা প্রায় ১১ লক্ষ। যার মধ্যে মহিলাদের সংখ্যা তিন লক্ষের কাছাকাছি। শিশুদের সংখ্যা ১ লক্ষ। তিন হাজার ২০০ ত্রাণশিবির তৈরি করে বন্যার্তদের রাখার ব্যবস্থা হয়েছে। সোমবার দিন বন্যা পরিস্থিতি খারাপ হওয়ায় উপদ্রুত এলাকা থেকে আরও ৬০২ জন বাসিন্দাকে উদ্ধার করে ত্রাণশিবিরে পাঠানো হয়েছে। কেরলের বন্যাকে ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয় হিসেবে আখ্যা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যদিও বিভিন্ন মহল থেকে কেরলের বন্যা পরিস্থিতিকে জাতীয় বিপর্যয় আখ্যা দেওয়ার দাবি উঠেছে।  

[পড়ুয়াদের মুখে হাসি ফোটাতে গাঁটের কড়ি খরচ করে ইলিশ খাওয়ালেন শিক্ষকরা]

কেরলের রাজ্য প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বন্যা পরিস্থিতির মোকাবিলায় সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে। এদিনই বৈঠক হওয়ার কথা। রাজ্যের বানভাসি মানুষকে বাঁচাতে বিভিন্ন তরফ থেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বিপর্যস্ত পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষদের উদ্ধার এগিয়ে এসেছিলেন রাজ্যের মৎস্যজীবীরা। আগামী ২৯ আগস্ট সেই মৎস্যজীবীদের সম্মান জানাবে পিনারাই বিজয়নের সরকার। একই সঙ্গে দুর্গম এলাকা থেকে বন্যা দুর্গতদের নিরাপদে উদ্ধার করে আনার জন্য দেশের সেনাবাহিনীকেও ধন্যবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। বলা বাহুল্য, উদ্ধারকার্যে ১৫০০ সেনাকর্মী নিযুক্ত ছিলেন।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে