BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কাশ্মীরে নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে তুমুল গুলির লড়াই, খতম হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ নেতা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 1, 2020 5:29 pm|    Updated: November 1, 2020 5:48 pm

Hizbul Mujahideen chief commander Saifullah killed in encounter in Kashmir’s Rangreth। Sangbad Pratidin

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরে দিনভর তুমুল গুলির লড়াই চলার পর খতম হল হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ নেতা সইফুল্লা। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ কাশ্মীরের রাংরেত এলাকায়। ঘটনাস্থল থেকে আরও একজন জঙ্গিকে জীবিত অবস্থায় গ্রেপ্তার করতে সমর্থ হয়েছেন নিরাপত্তারক্ষীরা।

এপ্রসঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশের আইজি (কাশ্মীর রেঞ্জ) বিজয় কুমার জানান, গোপন সূত্রে খবর আসে শ্রীনগরের রাংরেত (Rangreth) এলাকায় একজন জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে। সোমবার সকালে সেই খবরের ভিত্তিতে সেখানে প্রথমে যৌথ অভিযান চালায় পুলিশ ও সিআরপিএফ। পরে তাতে যোগ দেন ভারতী সেনা জওয়ানরাও। তল্লাশির সময় আচমকা জঙ্গিদের সঙ্গে গুলির লড়াই শুরু হয় নিরাপত্তারক্ষীদের। বেশ কিছুক্ষণ লড়াই চলার পর ঘটনাস্থল থেকে এক জঙ্গির মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পাশাপাশি আরেকজনকে জীবিত অবস্থায় পাকড়াও করা হয়। পরে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, মৃত জঙ্গি জম্মু ও কাশ্মীরে থাকা হিজবুল মুজাহিদিন (Hizbul Mujahideen) -এর প্রধান কমান্ডার সইফুল্লা। তবুও দেহ শনাক্ত করার জন্য তার পরিবারের সদস্যদের ডেকে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: লাভ জেহাদে অভিযুক্ত তৌসিফের শাস্তির দাবিতে উত্তপ্ত হরিয়ানার বল্লভগড়, আক্রান্ত পুলিশ]

সইফুল্লাকে খতম করার ঘটনা নিরাপত্তারক্ষীদের বড় সাফল্য বলে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সইফুল্লাকে নিয়ে এই বছর এখনও পর্যন্ত দু’জন হিজবুল প্রধানকে খতম করা হল। এবছরের মে মাসে হিজবুলের শীর্ষ কমান্ডার রিয়াজ নাইকোকে পুলওয়ামায় খতম করেন নিরাপত্তারক্ষীরা। তারপরই ভূস্বর্গের হিজবুল প্রধানের দায়িত্ব পায় সইফুল্লা। তাই আজ তার খতম হওয়ার ঘটনা নিরাপত্তারক্ষীদের বড় সাফল্য।

[আরও পড়ুন:বিজেপিকে নকল করতে থাকলে কংগ্রেস ‘শূন্য’ হয়ে যাবে, ‘নরম হিন্দুত্ব’ নিয়ে সতর্কবার্তা থারুরের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে