২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘আর কতদিন মেহবুবা মুফতিকে আটকে রাখবেন?’ কেন্দ্রকে প্রশ্ন শীর্ষ আদালতের

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 29, 2020 3:16 pm|    Updated: September 29, 2020 3:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “মেহবুবা মুফতিকে আর কতদিন আটকে রাখবেন?” কেন্দ্র ও জম্মু কাশ্মীর প্রশাসনের কাছে মঙ্গলবার জানতে চাইল সুপ্রিম কোর্ট। আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে এ নিয়ে জবাব তলব করেছে শীর্ষ আদালত। ১ বছরের বেশি সময় ধরে বন্দি রয়েছেন পিডিপি নেত্রী তথা কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি (Mehbooba Mufti)। জন নিরাপত্তা আইনে পিডিপি (PDP) নেত্রীর বন্দিদশাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁর মেয়ে ইলতিজা মুফতি। এ দিন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেই আবেদনেরই শুনানি হয়।

গত বছর আগস্ট মাসে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদার বিলোপ করে কেন্দ্র সরকার। সেই সময় থেকে অশান্তি পাকাতে পারে এই অজুহাতে জন নিরাপত্তা আইনে কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি, ওমর আবদুল্লা-সহ একাধিক স্থানীয় নেতানেত্রীকে আটক করা হয়। পরে তাঁদের গৃহবন্দী করে রাথা হয়। বাকিরা মুক্তি পেলেও এক বছরের বেশি সময় ধরে বন্দি মেহবুবা মুফতি। তাঁর মুক্তি চেয়ে শীর্ষ আদালতে গিয়েছেন মেয়ে ইলতিজা। তাঁর আবেদনের প্রেক্ষিতে এ দিন বিচারপতি সঞ্জয় কিষান কৌলের নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ কেন্দ্র ও কাশ্মীর প্রশাসনের কাছে জানতে চায়, “একজনকে কতদিন ধরে আটক করে রাখা  যেতে পারে? মেহবুবা মুফতিকে কতদিন বন্দি করে রাখতে চাইছেন?” প্রসঙ্গত, গত জুলাই মাসেই মুফতিকে আটক করে রাখার মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন : ‘কালো টাকার উৎস বন্ধ, তাই বিরোধিতা’, কৃষি বিল নিয়ে বিরোধীদের তোপ মোদির]

এদিন কেন্দ্রের তরফে আদালতে হাজির ছিলেন সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা। তিনি আদালতকে কোনও পর্যবেক্ষণ না করতে আরজি জানান। বলেন, “কাশ্মীরে অশান্তির ইতিহাস রয়েছে। মেহবুবা শান্তি নষ্ট করতে পারে, তাই তাঁকে আটক করে রাখা হয়েছে। ” বিচারপতি পালটা বলেন, “রাজ্যটির ইতিহাস খুবই সুন্দর। কিন্তু প্রাথমিক তদন্তের পর্যায়েই আপনারা আটক করে রাখার সর্বোচ্চ সময় কাটিয়ে ফেলেছেন। কারোর আর কী বলার থাকতে পারে!” মেহবুবা মুফতির আটকের মেয়াদ আর  কতদিন বাড়তে পারে, তা জানতে চেয়ে কাশ্মীর প্রশাসনকে দু’সপ্তাহ সময় দেওয়া হয়েছে। তবে মেহবুবা মুফতির দলীয় সভায় যোগ দেওয়ার অনুমতি চেয়ে মুফতি-কন্যা যে আবেদন জানিয়েছিলেন, তা এ দিন খারিজ করে দিয়েছে আদালত।

[আরও পড়ুন : বন্ধ অ্যাকাউন্ট, কেন্দ্রকে দুষে দেশে কাজ বন্ধ করল মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement