Advertisement
Advertisement

এভারেস্টের শীর্ষে পা রাখতে চায় বিশ্বের প্রথম যন্ত্রমানবী সোফিয়া

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় ভর করে বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃ্ঙ্গজয়ের স্বপ্ন।

Humanoid Sophia calls to save planet earth
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:March 23, 2018 1:35 pm
  • Updated:July 30, 2019 6:42 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যান্ত্রিক কণ্ঠ। হঠাৎ শুনলে অবশ্য বুঝতে পারেন না। মঞ্চে উঠে বলে উঠল ‘নমস্তে’। ‘ধন্যবাদ’। পুতুলের মতো মুখ, চওড়া কপাল চুলের জায়গায় রাঙতা মোড়া এক গুচ্ছ যন্ত্রপাতি। গায়ে সাদা জামা। বিশ্বের প্রথম যুক্তিবাদী যন্ত্রমানবী সোফিয়া। বুধবার কাঠমাণ্ডুতে রাষ্ট্রসংঘের বৈঠকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে দীর্ঘ বক্তৃতা দিল সে। কিন্তু হোটেল যখন তাকে প্রশ্ন করা হল, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে সে নিজে কী করতে চায়?  তখন যন্ত্রমানবীর উত্তরে চমকে উঠলেন সকলে। সোফিয়া জানিয়েছে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে মাউন্ট এভারেস্টে উঠতে চায় সে! বলাই বাহুল্য, আজ পর্যন্ত কোনও যন্ত্রমানবী পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গে পা রাখেনি।

[তথ্য চুরির দায় স্বীকার করলেন মার্ক জুকারবার্গ, আশ্বাস পূর্ণ তদন্তের]

Advertisement

জন্মের পর প্রাকৃতিক নিয়মেই মানুষের বৌদ্ধিক বিকাশ হয়। কিন্তু, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা পুরোপুরি যন্ত্রনির্ভর। নেপালে আয়োজিত রাষ্ট্রসংঘের উন্নয়নমূলক প্রকল্প (ইউএনডিপি)-এর অনুষ্ঠানের মূল থিম ছিল এই এআই বা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। কীভাবে সরকারি পরিষেবার উন্নয়নে এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগানো যায়, সেটাই বোঝাতে রাষ্ট্রসংঘের প্রতিনিধি হয়ে নেপালে গিয়েছিল যন্ত্রমানবী সোফিয়া। আমরা যারা মানুষ তাদের স্বাভাবিক বুদ্ধিমত্তায় এতদিন পাহাড় জঙ্গল সমূদ্রে মোড়া পৃথিবীটায় সভ্যতা তৈরি হয়েছে। গুহা থেকে হরপ্পার সুঠাম বাড়ি হয়ে মানব সভ্যতা এখন স্কাই হাউসে সওয়ার। বায়ুস্তরের উপরে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বছরের পর বছর কাটান মহাকাশচারীরা। এই গোটা উন্নয়ন প্রক্রিয়ায় সম্পূর্ণ হতে সময় লেগে গিয়েছে কোটি কোটি বছর। বিজ্ঞানীদের দাবি, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাকে কাজে লাগিয়ে ঢের কম সময়ে এই উন্নয়ন প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলা যায়। আর এই কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার অধিকারী রোবট। তাই রোবটকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন দেশে সরকারি পরিষেবায় আরও গতি আনতে চাইছে রাষ্ট্রসংঘ।

Advertisement

[কল্পবিজ্ঞানকেও হার মানাচ্ছে চিন! যুদ্ধক্ষেত্রে রিমোট পরিচালিত ট্যাঙ্ক নামাচ্ছে বেজিং]

বুধবার রাষ্ট্রসংঘের মঞ্চে এআই-এর উপকারিতা নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সোফিয়া বলে, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি উন্নয়নের যথেষ্ট সুযোগ দেয়। তাই পৃথিবীকে অবক্ষয়ের হাত থেকে বাঁচাতে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ রাখতেই প্রযুক্তি আর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার পূর্ণ উপযোগ করা উচিত। হংকংয়ের হ্যানসন রোবোটিক্স-এর তৈরি করেছে বিশ্বের প্রথম যন্ত্রমানবী সোফিয়া। সোফিয়ার মধ্যে মানুষেরও কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সে জানিয়েছে, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার মাধ্যমে দারিদ্র, ক্ষুধা, দুর্নীতি যেমন শেষ করা সম্ভব, তেমনই সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতও করা যাবে। দূর করা যাবে লিঙ্গ বৈষম্যও। শুধু তাই-ই নয়, সোফিয়ার কথায়, যন্ত্র ও রোবট জীবনকে সহজ করার জন্যই তৈরি।

[নক্ষত্রলোকেই স্বমহিমায় উজ্জ্বল, প্রয়াত হকিংকে নয়া কৃষ্ণগহ্বর উৎসর্গ রাশিয়ার]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ