৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্ত্রীকে খুন করে মৃতদেহর সঙ্গে সহবাস স্বামীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 15, 2017 4:29 am|    Updated: February 15, 2017 4:29 am

Husband kills wife, stayed with dead body for long period

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একদিকে যখন গোটা পৃথিবী মেতে রয়েছে ভালবাসার উৎসবে তখন অন্য নারীর জন্য স্ত্রীকে নৃশংসভাবে হত্যা করল স্বামী। পূর্ব দিল্লির মধুবিহারের এই ঘটনা দাম্পত্যে ভালবাসা এবং বিশ্বাস বজায় রাখার উপর প্রশ্ন তুলে দিল।

৪০ বছরের সুবোধ কুমার জেরায় স্বীকার করে নিয়েছে সে তার স্ত্রী মনীষাকে হত্যা করেছে। গত মঙ্গলবার বিকেলে যখন পুলিশ সুবোধের বাড়িতে হানা দেয়, তখন মনীষার ক্ষত-বিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, মনীষার দেহ কুচি কুচি করে কেটে ফেলেছিল সুবোধ। তাঁর কাটা মাথা বাড়ির দেওয়ালে ঝোলানো অবস্থায় উদ্ধার হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, সুবোধ এবং মনীষার দাম্পত্য কলহ লেগেই থাকত। মাঝেমধ্যেই সে মনীষা এবং দুই কন্যাসন্তানকে বেধড়ক মারধর করত। জেরায় অভিযুক্ত জানিয়েছে, ঘটনার দিনও স্ত্রীকে বারবার আঘাত করেছিল সে। আর মারের চোটেই মৃত্যু হয় মনীষার। বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয় তার চেষ্টাও করেছিল সে। মৃতদেহর সঙ্গেই বাস করছিল সে। কিন্তু এতেও বিশেষ লাভ হয়নি। দু’দিন মৃতদেহ ঘরের মধ্যে রেখে দেওয়ার পর, সেখান থেকে পচা গন্ধ বেরতে শুরু করে। এরপরেই স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন।

ঘটনার দু’দিন আগে সুবোধ তার দুই মেয়েকে আত্মীয়ের বাড়ি রেখে এসেছিল বলেও জানা গিয়েছে। আর তাতেই মনে করা হচ্ছে খুনের বিষয়টি পূর্বপরিকল্পিত।

জেরায় সুবোধ স্বীকার করে নিয়েছে অন্য মহিলার সঙ্গে সম্পর্কের কথা। জানিয়েছে, ছ’মাস আগে মুনিয়া নামের এক মহিলাকে বিয়ে করে সে। আর মুনিয়ার সঙ্গে এই সম্পর্কের কথাই জানতে পেরে গিয়েছিল মনীষা। আর এরপরেই বিবাহবিচ্ছেদ চান তিনি। কিন্তু এরপরই অশান্তি বাড়তে থাকে সুবোধ আর মনীষার। আর অবস্থা এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে মনীষাকে হত্যা করে সুবোধ।

গোটা বিষয়টিতে সুবোধের দ্বিতীয় স্ত্রী মুনিয়া কোনওভাবে জড়িত কি না তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে