BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আক্রান্ত থুতু ছেটালেই দায়ের হবে খুনের চেষ্টার অভিযোগ, সংক্রমণ ঠেকাতে কড়া পুলিশ

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 6, 2020 5:47 pm|    Updated: April 6, 2020 6:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কখনও হাসপাতালে নার্সদের সঙ্গে অভব্যতা। আবার কখনও চিকিৎসকদের গায়ে থুতু ছিটিয়ে দে্ওয়ার মতো অভিযোগ উঠছে নিজামুদ্দিন মারকাজ ফেরত করোনা আক্রান্তদের বিরুদ্ধে। এবার এ ধরণের অভব্যতা করলে কড়া ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ‘খুনের চেষ্টা’র ধারায় অভিযোগ রুজু হবেৃ। সোমবার এহেননির্দেশিকা জারি করল হিমাচল প্রদেশ পুলিশ।

নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, করোনা আক্রান্ত কোনও ব্যক্তি কারোর গায়ে থুতু দিলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার (Attempt to Murder) মামলা রুজু করা হবে। আর যার উপর থুতু ফেলা হয়েছিল তিনি যদি মারা যান, তাহলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা হবে। সোমবার এমনটাই জানালেন হিমাচল প্রদেশের ডিজিপি এস মারডি।

[আরও পড়ুন : করোনায় মহিলাদের তুলনায় পুরুষরা বেশি আক্রান্ত, স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্যে চাঞ্চল্য]

এ দিন তিনি আরও জানান, হিমাচলে আরও এক তবলিঘি জামাত সদস্যের দেহে করোনার জীবাণুর হদিশ মিলেছে। এর আগে দিল্লির ধর্মীয় সমাবেশ থেকে ফেরা আরও তিনজনও করোনা পজিটিভ ছিলেন। তাঁরা ১৮ মার্চ সরকারি বাসে হিমাচল ফিরছেন। সেই সময় বহু মানুষের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁরা। ফলে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তাই ওই বাসে থাকা সকলকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন : করোনা যোদ্ধাদের সম্মানার্থে নয়া সিদ্ধান্ত! একবেলা উপবাস করবেন ইয়েদুরাপ্পা]

প্রসঙ্গত, দিল্লির ধর্মীয় সমাবেশ থেকে ফেরা হাজার জনের বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। একই কারণে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন আরও ২৫ হাজার মানুষ। কিন্তু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বহু তবলিঘি জামাত সদস্যই চিকিৎসা করাতে চাইছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতালের চিকিৎসক এবং নার্সদের সঙ্গে অভ্যবতা করছেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। বহু হাসপাতালেই এ ধরণের ঘটনা সামনে এসেছে। এবার এই পরিস্থিতি সামাল দিতে কড়া ব্যবস্থা নিল হিমাচল প্রদেশ পুলিশ। বাকি রাজ্যগুলি কী ব্যবস্থা নেয়, তার দিকে তাকিয়ে দেশবাসী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement