BREAKING NEWS

১২ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

কৃষকদের পর এবার চিকিৎসকরা, কেন্দ্রের নয়া নীতির বিরুদ্ধে ধর্মঘটের ডাক IMA’র

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: December 3, 2020 5:52 pm|    Updated: December 3, 2020 5:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আয়ুর্বেদিক (Ayurveda) চিকিৎসকদের দীর্ঘদিনের দাবি মেনে তাঁদের অস্ত্রোপচারের অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। যার ফলে, অভিজ্ঞ সার্জেনদের মতোই জটিল অস্ত্রোপচার করতে পারবেন আয়ুর্বেদ চিকিৎসকরাও। কিন্তু কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেনি সর্বভারতীয় চিকিৎসক সংগঠন ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন বা IMA। আর তারই প্রতিবাদে আগামী ১১ ডিসেম্বর শুক্রবার দেশব্যাপী ১২ ঘণ্টা চিকিৎসক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে তারা।

জানা গিয়েছে, ওইদিন সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টা এই ধর্মঘট চলবে। তবে অত্যাবশকীয় চিকিৎসা এবং কোভিড (Covid-19) চিকিৎসার ক্ষেত্রে এই ধর্মঘটে লাগু হবে না বলে তারা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে। যে কোনও এমারজেন্সি, চোট-আঘাত, প্রসব ইত্যাদি পরিষেবা এবং ICU, ITU, CCU-এর মতো ইত্যাদি জরুরি পরিষেবাও ধর্মঘটের বাইরে থাকবে। তবে সমস্ত সরকারি–বেসরকারি হাসপাতালের আউটডোরে ধর্মঘট হবে। ওইদিন পূর্ব পরিকল্পিত কোনও অপারেশনও হবে না। মেডিক্যাল কলেজগুলির শিক্ষক চিকিৎসক, সরকারি চিকিৎসক, রেসিডেন্ট ডক্টর্স অ্যাসোসিয়েশন, ডাক্তারি পড়ুয়াদের সংগঠন, হাসপাতালগুলির সংগঠন, বিভিন্ন নার্সিং সংগঠনকে ইতিমধ্যে এই ধর্মঘটে শামিল হতে আহ্বান জানিয়েছে IMA।

‌[আরও পড়ুন: কৃষকদের প্রতি ‘বঞ্চনা’র প্রতিবাদ, পদ্মবিভূষণ ফেরালেন অকালি নেতা প্রকাশ সিং বাদল]

IMA–র তরফে বলা হয়েছে, সমস্ত ধরনের চিকিৎসা পদ্ধতিকে একছাতার তলায় আনতে নীতি আয়োগের তৈরি কমিটি ও আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকদের শল্য চিকিৎসায় অনুমতি, এই দুই কেন্দ্রীয় নির্দেশ বাতিলের দাবিতে এই ধর্মঘট।

এর আগে আইনি গেরোয় শল্য চিকিৎসা নিয়ে পড়াশোনা করা আয়ুর্বেদিক চিকিৎসকরা ‘জেনারেল সার্জারি’র সুযোগ বা অধিকার, কোনওটাই পাচ্ছিলেন না। অর্শ, ভগন্দর, ফিসচুলা বা হাইড্রোসিলের মতো গুটিকয় মামু্লি অস্ত্রোপচারে আবদ্ধ ছিল তাঁদের কাজ। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার আইন সংশোধন করে আয়ুর্বেদ সার্জেনদের কাজের পরিধি বাড়িয়ে দেয়। ফলে এখন জেনারেল সার্জারির আওতাভুক্ত প্রায় সব অস্ত্রোপচারের টেবিলে আয়ুর্বেদ চিকিৎসকরা ছুরি-ফরসেপ ধরতে পারবেন। তা সে অ্যাপেনডিক্স বাদ দেওয়া হোক বা দাঁত তোলা, কিংবা টনসিল বা নাকের প্লাস্টিক সার্জারি। এমনকী, কোলেস্টোমি ও হার্নিয়া অপারেশনও করতে পারবেন আয়ুর্বেদে এমএস সার্জনরা। আর এতেই আপত্তি আইএমএ’র। এখন দেখার নয়া বিতর্কের জল কতদূর গড়ায়।

‌[আরও পড়ুন: ‘করোনা ও লালফৌজ, জোড়া চ্যালেঞ্জের মোকাবিলায় অবিচল আমরা’, চিনকে হুঁশিয়ারি নৌসেনা প্রধানের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement