২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আগামী দু’দিন উত্তর ভারতের একাধিক রাজ্যে বইবে গরম হাওয়া, জারি ‘রেড’ অ্যালার্ট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 24, 2020 8:16 pm|    Updated: May 24, 2020 8:16 pm

IMD predicts heatwave in several parts of north India, issues red alert

ছবি: প্রতীকী।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপার সাইক্লোন আমফানে তছনছ হয়ে গিয়েছে বাংলার বিস্তীর্ণ এলাকা। ক্ষতিগ্রস্ত ওড়িশাও। ভয়ংকর সেই তাণ্ডবের রেশ কাটতে না কাটতে এবার উত্তর ভারতের একাধিক রাজ্যে আগুনে হাওয়া বইবে বলে জানিয়ে দিল আইএমডি (India Meteorological Department)। দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড় এবং রাজস্থানের মতো রাজ্যগুলিতে আগামী দু’দিন গরম হাওয়া বওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

উত্তর ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে ইতিমধ্যেই তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের গণ্ডি পেরিয়েছে। সেই জন্যই এই রাজধানী-সহ পাঞ্জাব, রাজস্থান-সহ একাধিক রাজ্যে জারি হয়েছে ‘রেড’ অ্যালার্ট। এমনকী উত্তরপ্রদেশের পূর্বাঞ্চলে অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করেছে হাওয়া অফিস। আইএমডি প্রধান কুলদীপ শ্রীবাস্তব বলেন, আগামী দুই-তিনদিন তাপমাত্রার পারদ ৪৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত পৌঁছে যাবে। চলতি গ্রীষ্মে রবিবারই প্রথম এমন সতর্কতা জারি করতে হল হাওয়া অফিসকে। হাওয়া অফিসের তরফে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বলা হয়েছে, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, দিল্লি, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশের পাশাপাশি আগামী পাঁচদিন মধ্যপ্রদেশ, বিদর্ভ ও তেলেঙ্গানাতেও বইবে অতিউষ্ণ হাওয়া। শুধু তাই নয়, ছত্তিশগড়, ওড়িশা, গুজরাটের, মধ্য-মহারাষ্ট্র, অন্ধ্র উপকূল, কর্ণাটকের উত্তরভাগেরও বেশ কিছু এলাকা এই গরম আবহাওয়ার সাক্ষী হবে আগামী তিন-চারদিন। দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত যখন বাইরের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ, তখন প্রত্যেককে ঘরের ভিতরে থাকারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: সোমবার থেকে বাংলায় বিমান পরিষেবা চালু হচ্ছে না, রাজ্যের আপত্তিকে মান্যতা কেন্দ্রের]

প্রতি বছরই গ্রীষ্মকাল পড়তেই উত্তর ভারতে তাপমাত্রার পারদ চড়তে শুরু করে। কিন্তু এবার এপ্রিল থেকে মে-র মধ্যভাগ পর্যন্ত বৃষ্টি হওয়ায় এবারের তাপমাত্রা লাফিয়ে বাড়েনি। কিন্তু এবার চোখ রাঙাচ্ছে গরম হাওয়া। রবিবা রাজস্থানের পিলানিতে রেকর্ড মাত্রায় গরম পড়ে। এদিন সেখানকার তাপমাত্রা ছিল ৪৬.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সমতলের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রির বেশি হলে তা উষ্ণবায়ু বলে চিহ্নিত হয়। বিপদের তীব্রতা অনুযায়ী লাল, কমলা, হলুদ ও সবুজ রং ব্যবহার করেছে আবহাওয়া দপ্তর। কিন্তু কবে মিলবে এর থেকে নিষ্পত্তি? আইএমডি প্রধানের মতে, ২৮ মে’র আগে কোনও সম্ভাবনা নেই। তারপর বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হলে পরিস্থিতি বদলাতে পারে।

[আরও পড়ুন: পালঘরের পর নান্দেদ, গলায় চার্জারের তার জড়িয়ে মহারাষ্ট্রে ২ সাধুকে খুন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে