BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ২৪ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিহারে গরুচোর সন্দেহে তিন মদ্যপকে বেধড়ক মারধর উত্তেজিত জনতার, মৃত ১

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 8, 2021 6:15 pm|    Updated: January 8, 2021 6:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের গরুচোর সন্দেহে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারার ঘটনা ঘটল বিহারে। গুরুতর জখম হয়েছেন আরও দু’জন। গত বছর ডিসেম্বর মাসের মাঝামাঝি সময়ে একই অভিযোগে পাটনার ফুলওয়ারি শরিফে বছর বত্রিশের এক যুবক আলমগিরকে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল। এক মাসের কম সময়ে ফের সেই নৃশংসতার সাক্ষী হল নীতিশ কুমারের রাজ্য। এবার ঘটনাটি ঘটল পূর্ণিয়া (Purnia) জেলার শ্রীনগর পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত কাদাগামা গ্রামে। ঘটনাটির কথা প্রকাশ্যে আসার পর উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে তিন জন মদ্যপ ব্যক্তি শ্রীনগর থানার কাদাগামা গ্রামের দুটি মোষ চুরি করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ। এরপরই তাদের আটক করে গরুচোর (cattle theft) সন্দেহে বেধড়ক মারধর করতে থাকে উপস্থিত জনতা। খবর পেয়ে স্থানীয় থানার পুলিশকর্মী ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেন এক ব্যক্তি অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। আর বাকি দু’জনকে তখনও মারধর করছে প্রচুর লোক। কোনওক্রমে বুঝিয়ে ওই ব্যক্তিদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে একজন মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। বাকিদের চোখ প্রচণ্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ফের নিষ্ফল আলোচনা, জানুয়ারির ১৫ তারিখ আবার কৃষকদের সঙ্গে বৈঠক কেন্দ্রের]

এপ্রসঙ্গে শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক সন্তোষ কুমার ঝা জানান, মৃত ব্যক্তির নাম শ্যাম দেব যাদব। বাড়ি আরারিয়া জেলা। তিনি আরও দুই সঙ্গীকে নিয়ে কাদাগামা গ্রাম থেকে দুটি মোষ চুরি করতে গিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। এর জেরে স্থানীয় কিছু লোক তাঁদের প্রচণ্ড মারধর করে। বর্তমানে মৃতের দুই সঙ্গী আরারিয়ার মনোজ যাদব ও কৈলাশ শাহ জখম অবস্থায় হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। তাঁদের থেকে সত্যিটা জানার চেষ্টা চলছে। পাশাপাশি ঘটনাস্থলে থাকা মানুষদেরও শনাক্ত করা হচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি এই ঘটনার আসল অপরাধীদের গ্রেপ্তার করা হবে।

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে বিষমদ খেয়ে মৃত ৫, হাসপাতালে আশঙ্কাজনক আরও ১৬]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement