১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা কমাতে গিয়ে জিডিপি কমিয়েছে সরকার’, রাহুলের পাশে শিল্পপতি রাজীব বাজাজ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 4, 2020 11:32 am|    Updated: June 4, 2020 5:26 pm

An Images

সোমনাথ রায়: অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়, রঘুরাম রাজন, ডঃ আশিস ঝাঁ এবং ডঃ জোহান জিয়েস্কের পর এবার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শিল্পপতি রাজীব বাজাজের (Rajiv Bajaj) সঙ্গে আলোচনা করলেন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকারের রণকৌশল থেকে শুরু করে লকডাউন কার্যকর করার প্রক্রিয়া, রাহুলের সঙ্গে সুর মিলিয়ে সরকারের প্রায় সব পদক্ষেপ নিয়েই এদিন সরব হলেন ‘বাজাজ অটো’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর।

রাজীব বাজাজের দাবি, “সরকার করোনার গ্রাফ নিম্নমুখী করতে গিয়ে জিডিপির গ্রাফ নিম্নমুখী করে ফেলেছে। আমাদের সবচেয়ে বড় ভুল হল, আমরা সমস্যার সমাধানের জন্য ইউরোপের দেশগুলিকে অনুসরণ করেছি। কিন্তু আমাদের অনুসরণ করা উচিৎ ছিল এশিয়ার দেশগুলির দিকে।” ‘বাজাজ অটো’র কর্ণধার বলছেন,”করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার দুটো উপায় ছিল সরকারের কাছে। প্রথমত কঠোর লকডাউন, যাতে সবাই বাড়িতে বসে থাকবে। কেউ কারও মুখ দেখবে না। দ্বিতীয় বিকল্প ছিল, পুরো বিষয়টা উপেক্ষা করা। এবং স্বাভাবিক কাজকর্ম চালিয়ে যাওয়া। আমাদের সরকার পাশ্চাত্য দেশগুলির দেখাদেখি কঠোর লকডাউনের পথে হেঁটেছে। কিন্তু আমার মনে হয় না, কোথাও লকডাউন ততটা কঠোরভাবে কার্যকর হয়েছে। যার ফলে এখন যখন আমরা অর্থনৈতিক কার্যকলাপ চালু করছি, তখনও ভাইরাসটি আমাদের এদেশে যথেষ্ট প্রভাবশালী। এর ফলে সংক্রমণও বাড়ছে। আবার অর্থনীতিও ভেঙে পড়েছে। আমরা দু’দিকেই সবচেয়ে খারাপ পারফর্ম করছি।”

[আরও পড়ুন: লকডাউন তুলে দেওয়ার ফল! একদিনে দেশে মৃত্যু এবং আক্রান্ত দুই সংখ্যাতেই রেকর্ড বৃদ্ধি]

বাজাজ গ্রুপের এমডি আরও বলেন, সরকারের আরও বেশি স্বচ্ছ হওয়া উচিৎ ছিল। করোনার আক্রমণের সংখ্যা, রিপোর্ট নিয়ে আরও স্পষ্ট করে তথ্য দেওয়া উচিৎ ছিল। সেসব না হওয়ায়, এখন ভুগতে হচ্ছে সবাইকে। রাজীব বাজাজের এই কথার ভিত্তিতেই রাহুল গান্ধী দাবি করেন,”সম্ভবত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়ও বিশ্বে এমন লকডাউন ছিল না।” প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি দাবি করেন, “সরকারের এই লকডাউন ব্যর্থ হয়েছে। সম্ভবত ভারতই একমাত্র দেশ, যেখানে লকডাউন তোলার পরও এই গতিতে সংক্রমণ বাড়ছে।” 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement