BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে এই সাঁওতাল রমণীই বিজেপির তুরুপের তাস

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 14, 2017 9:24 am|    Updated: June 14, 2017 9:24 am

India may get first tribal president in Draupadi Murmu

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পদ এক, আলোচনা অনেক। রাইসিনা হিলসের বাড়ি কে দখল করবেন? তা নিয়ে চলছে বিস্তর জল্পনা-কল্পনা। কেন্দ্র-বিরোধী, দুই পক্ষই চায় রাষ্ট্রপতি পদে নিজেদের প্রার্থী দিতে। সময়ের ফেরে উঠে এসেছে একাধিক নাম। বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আদবানি, এরএসএস প্রমুখ মোহন ভাগবত, পাঁচবার পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হওয়া প্রকাশ সিং বাদল থেকে কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ পর্যন্ত কোনও নামই বাদ যায়নি এই তালিকা থেকে।

কিন্তু হেভিওয়েট এই নামগুলির মধ্যেই উঠে এসেছে আরও একটি নাম। দ্রৌপদী মুর্মু। দেশের রাজনৈতিক মহলে অনেকেরই কপালে ভাঁজ পড়েছে রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়ে এই নামটি দেখে। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে ওড়িশার ওই সাঁওতাল রমণীই দেশের ১৪তম রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়ে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে। দলিত এই মুখটিকে সামনে রেখেই নাকি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বাজিমাত করতে চলেছে শাসকদল বিজেপি।

71d85559-ada2-4c94-9940-1a172dfde1fe

[চালকের কানে ফোন? এমন ছবি তুললেই মিলবে পুরস্কার]

কিন্তু কে এই মহিলা? কেমন করেই বা রাইসিনা হিলসের দৌঁড়ে ডার্ক হর্স হয়ে উঠলেন তিনি? ওড়িশার ময়ূরভঞ্জের সামান্য এক গ্রামের বাসিন্দা দ্রৌপদী। ১৯৯৭ সালে প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে যোগ দেন বিজেপির হয়ে। তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাননি সাঁওতাল কন্যা। ব্যক্তিগত জীবনে একের পর এক মর্মান্তিক ঘটনার মধ্যে যেতে হয়েছে তাঁকে। হারিয়েছেন স্বামী ও দুই ছেলেকে। কিন্তু সে দুঃখ যেন আরও শক্ত করে তুলেছে দ্রৌপদীকে। ২০০৭ সালে তিনি ওড়িশার সেরা বিধায়কের শিরোপা হিসেবে নীলকণ্ঠ অ্যাওয়ার্ড পান তিনি। প্রথম মহিলা হিসেবে ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল পদ গ্রহণ করেন। মাত্র কুড়ি বছরের রাজনৈতিক কেরিয়ারেই বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের মধ্যে নিজের জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন দ্রৌপদী। প্রধানমন্ত্রী মোদিরও নাকি পছন্দের প্রার্থী তিনিই।

61e588fb-a876-41c6-ba38-294e70524a4b

শোনা গিয়েছে, আদিবাসীদের এই প্রতিনিধিকে দেশের সর্বোচ্চ স্থানে বসিয়ে এক ঢিলে দুই পাখি মারতে চাইছে শাসক দল। একদিকে দ্রৌপদীর স্বচ্ছ রাজনৈতিক কেরিয়ারের সৌজন্যে বিরোধীরা কোনও আপত্তি জানাতে পারবেন না, অন্যদিকে দলিত মুখকে সামনে রেখে উগ্র জাতীয়তাবাদের তকমা থেকে কিছুটা হলেও বেরিয়ে আসা যাবে। তবে কারণ যাই হোক, রাইসিনা হিলসের মসনদে বসলে নতুন ইতিহাস তৈরি করবেন আদিবাসী রমণী।

[স্কুলব্যাগের স্টিকার উঠতেই অখিলেশের মুখ, বিতর্কে গুজরাটের বিজেপি সরকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে