১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নজরে চিন, এবার আণবিক ‘শৌর্য’ ব্যালিস্টিক মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ করল ভারত

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: October 3, 2020 3:51 pm|    Updated: October 3, 2020 3:51 pm

India successfully tests advanced version of nuclear-capable Shaurya missile | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিনের সঙ্গে সংঘাতের আবহে ফের পরীক্ষামূলক মিসাইল উৎক্ষেপণ করল ভারত। শনিবার, ওড়িশার টেস্ট রেঞ্জে আণবিক অস্ত্রবহনে সক্ষম ‘শৌর্য’ ব্যালিস্টিক মিসাইলের আরও আধুনিক সংস্করণের সফল উৎক্ষেপণ করা হয়।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে স্থগিত ইএমআইয়ের উপর সুদ নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের, উপকৃত হবে মধ্যবিত্তরা]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, পারমাণবিক অস্ত্রবহনে সক্ষম শৌর্য মিসাইলের (Shaurya missile) এই নয়া সংস্করণটি ৮০০ কিলোমিটার পর্যন্ত লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম। এই সফল উৎক্ষেপণের পরই ভারতের ‘স্ট্র্যাটেজিক মিসাইল ফোর্স’-এ শামিল হবে এই হাইপারসোনিক অর্থাৎ শব্দের চেয়েও দ্রুত এই ক্ষেপণাস্ত্র। শত্রুপক্ষের আণবিক অস্ত্রভাণ্ডার তথা সম্ভাব্য পারমাণবিক হামলার পালটা জবাব দিতে ‘স্ট্র্যাটেজিক মিসাইল ফোর্স’ গড়ে তুলেছে ভারত। এতে শৌর্য ছাড়াও রয়েছে আণবিক অস্ত্রবহনে সক্ষম অগ্নি মিসাইল ও অন্যান্য ক্ষেপণাস্ত্র। মিসাইল প্রযুক্তির ক্ষেত্রে প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থা (DRDO) আত্মনির্ভর হওয়ার চেষ্টা আরও জোরদার করেছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে স্বনির্ভর হওয়ার ডাক দেওয়ায় কাজের গতি বাড়িয়ে তুলেছে প্রতিষ্ঠানটি।

উল্লেখ্য, গত বুধবার বর্ধিত পাল্লার সুপারসনিক ব্রহ্মস ক্রুজ মিসাইলের সফল উৎক্ষেপণ করে ভারত। রাশিয়া ও ভারতের যৌথ উদ্যোগে তৈরি ক্ষেপণাস্ত্রটি এবার ৪০০ কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম। প্রতিরক্ষা গবেষণা ও উন্নয়ন সংস্থার (DRDO) ‘PJ-10’ প্রজেক্টের আওতায় এই পরীক্ষা করা হয়। DRDO সূত্রে খবর, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি বুস্টার বা নয়া ইঞ্জিনের দৌলতে এবার ৪০০ কিলোমিটার পর্যন্ত হামলা চলতে পারবে এই মিসাইলটি। এদিনের পরীক্ষায় সুনির্দিষ্ট টার্গেটে আঘাত হেনেছে ক্ষেপণাস্ত্রটির নয়া সংস্করণ।

এদিকে, লাদাখে চিনা সেনাকে জবাব দিতে সীমান্তে ‘নির্ভয়’ মিসাইল মোতায়েন করল ভারত। আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও ফৌজে অন্তর্ভুক্তি হয়নি ক্ষেপণাস্ত্রটির। কিন্তু হানাদার চিনা বাহিনীকে জবাব দিতে অন্তর্ভুক্তির আগেই বেশ কয়েকটি মিসাইল ইউনিট প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় মোতায়েন করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনী (Indian Army)। সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি কঠিন জ্বালানিতে চলা এই সাবসোনিক মিসাইল ১ হাজার কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম। শত্রুপক্ষের রাডারের চোখে ধুলো দিতে জমি বা সমুদ্রপৃষ্ট ঘেঁষে নিশানায় দিকে উড়ান ভরে মিসাইলটি।

[আরও পড়ুন: আত্মনির্ভর ভারতের নয়া দৃষ্টান্ত ‘অটল টানেল’! এবার নিমেষে লাদাখ পৌঁছবে সেনার অস্ত্রশস্ত্র]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে