২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

লাদাখ সীমান্তে সামরিক ক্ষমতা বাড়াল ভারতীয় সেনা, প্যাংগং হ্রদে ভাসল দেশীয় প্রযুক্তির ভেসেল

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: August 17, 2022 1:02 pm|    Updated: August 17, 2022 1:40 pm

Indian Army deploys new assault vessel in Pangong Lake | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিনা (China) আগ্রাসনের পালটা দিল ভারত। লাদাখ (Ladakh) অঞ্চলে বাড়ল সামরিক সক্ষমতা। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (ALC) বরাবর প্যাংগং হ্রদে একটি নতুন ভেসেল মোতায়েন করল ভারতীয় সেনা। ‘ল্যান্ডিং ক্র্যাফ্ট অ্যাসল্ট’ (Landing Craft Assault) নামের ভেসেলটি প্যাংগং হ্রদ অঞ্চলে সেনার শক্তি অনেকটাই বাড়াল বলে মনে করা হচ্ছে।

গতকালই যুদ্ধাস্ত্রের আধুনিকীকরণে বড় পদক্ষেপ করা হয়েছে। সেনার হাতে ‘এফ-ইনসাস’ (F-INSAS) তুলে দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)। সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, হাতের রাইফেল থেকে মাথার হেলমেট, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির মেলবন্ধনে এফ-ইনসাস পদ্ধতি আগামী দিনে হয়ে উঠবে ভারতীয় সেনার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। এর পাশাপাশি জলপথে ভাসল ‘ল্যান্ডিং ক্র্যাফ্ট অ্যাসল্ট’ বা এলসিএ ভেসেল।

[আরও পড়ুন: কম গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগ, অপমানিত হয়ে দায়িত্ব ছাড়লেন গুলাম নবি আজাদ]

সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, নয়া প্রযুক্তির ব্যবহারে এলসিএ-র কার্যক্ষমতা বাড়ানো হয়েছে। বেড়েছে ভেসেলের গতি ও ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের সক্ষমতা। উল্লেখ্য, এলসিএ দেশীয় প্রযুক্তিতে ভারতে তৈরি আক্রমণকারী ভেসেল। গোয়ার (Goa) অ্যাকোরিয়াস শিপ ইয়ার্ড লিমিটেড এই ভেসেলটি তৈরি করেছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর ভারতীয় সেনা যে সব প্রতিকূলতার মধ্যে পড়ে তা অনেকটাই কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে এবার। এদিন এলসিএ ভেসেল ছাড়াও উচ্চ গতিসম্পন্ন আইপিএমভি (IPMV) যান তুলে দেওয়া হয়েছে সেনার হাতে। বলা বাহুল্য, এর ফলে লাদাখ সীমান্তে ভারতের শক্তি বাড়বে। চিনের আগ্রাসন মোকাবিলায় যা কার্যকরী হবে।

[আরও পড়ুন: কাটা মুন্ডু হাতে ২৫ কিমি হেঁটে থানায় হাজির যুবক, ৫০০ টাকার জন্য এ কী করলেন!]

প্রসঙ্গত, গতকাল যে এফ-ইনসাস তুলে দেওয়া হয়েছে সেনার হাতে, তাতে রয়েছে একটি একে ২০৩ অ্যাসল্ট রাইফেল, একটি ব্যালিস্টিক হেলমেট, একটি ব্যালিস্টিক গগলস, বুলেটপ্রুফ ভেস্ট, কনুই রক্ষার জন্য বিশেষ প্যাড। সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, হেলমেট ও ভেস্ট ৯ এমএম বন্দুকের গুলি এবং একে ৪৭-এর গুলি থেকে সেনাকে রক্ষা করতে সক্ষম হবে। এছাড়াও অত্যাধুনিক যোগাযোগ পদ্ধতির ব্যবস্থা থাকছে এফ-ইনসাসে। যুদ্ধক্ষেত্রে কমান্ড পোস্টের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্য থাকবে একটি হ্যান্ডস-ফ্রি। পদাতিক সৈন্যদের হেলমেটে লাগানো থাকবে নাইট ভিশন ক্যামেরা। সব মিলিয়ে বদলে যাবে সেনা অস্ত্র ও নিরাপত্তা বর্ম!

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে