১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাষ্ট্র সমর্থিত সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে নাম না করে পাকিস্তানকে তুলোধোনা জয়শংকরের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: November 16, 2020 2:28 pm|    Updated: November 16, 2020 2:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ফের নাম না করে পাকিস্তানকে তুলোধোনা করলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর (S.Jaishankar)। একইসঙ্গে, জেহাদিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চের ‘সদিচ্ছার অভাব’ রয়েছে বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: কান্দাহার প্রদেশে ১৫২ জন পাকিস্তানি জঙ্গিকে খতম করল আফগান সেনা]

সোমবার বিদেশমন্ত্রকের তরফে জয়শংকর বলেন, “৯/১১ হামলার পর সন্ত্রাসবাদ ‘আমার সমস্যা নয়’ মনোভাব কেটেছে। তবে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে একজোট হয়ে লড়াইয়ে যৌথ আন্তর্জাতিক প্রয়াসের অভাব রয়েছে। আমাদের এমন এক পড়শি রয়েছে যে সীমান্তের ওপার থেকে সন্ত্রাসবাদে মদত দিচ্ছে।” বিশ্লেষকদের মতে, পড়শি বলতে এক্ষেত্রে পাকিস্তানকেই দায়ী করছেন বিদেশমন্ত্রী। মুম্বই, পাঠানকোট, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার প্রত্যক্ষ প্রমাণ থাকা সত্বেও লস্কর-ই-তইবা, জইশ-ই-মহম্মদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করেনি পাকিস্তান। আন্তর্জাতিক চাপ থাকলেও নিজের নীতিতে কোনও পরিবর্তন আনেনি দেশটি। এদিন সেই কোথা মনে করিয়ে দিয়েই আন্তর্জাতিক মঞ্চের বিরুদ্ধে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন জয়শংকর।

উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই পুলওয়ামা হামলা বড় সাফল্য বলে মন্তব্য করেন পাকিস্তানের মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরির (Fawad Chaudhry)। সেই স্বীকারোক্তিকে হাতিয়ার করে ভারত সরকার যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ফোরামে সরব হতে চলেছে, তা নিশ্চিত করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা প্রাক্তন সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল ভি কে সিং (VK Singh) বলেন,”আমি ওকে (পাকিস্তানের মন্ত্রীকে) ধন্যবাদ জানাব পুলওয়ামার আসল সত্যিটা স্বীকার করার জন্য। আমরা শুরু থেকেই বলছি, এই ঘটনার পিছনে পাকিস্তানের হাত আছে।” এই মুহূর্তে Financial Action Task Force অর্থাৎ FATF-এর ধূসর তালিকায় আছে পাকিস্তান। যার ফলে ইমরানের দেশকে সাহায্য করা বন্ধ করে দিয়েছে অনেক দেশই। এরপর কালো তালিকাভুক্ত হলে, বিদেশি সাহায্য পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে। যা পাক অর্থনীতির জন্য ভরাডুবি বয়ে আনতে পারে।

[আরও পড়ুন: কান্দাহার প্রদেশে ১৫২ জন পাকিস্তানি জঙ্গিকে খতম করল আফগান সেনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement