BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ট্রেনের খাবার খেয়ে প্রতিদিন কীভাবে ঠকছেন জানেন?

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 17, 2017 5:03 am|    Updated: February 17, 2017 5:03 am

INDIAN RAILWAY CATERING SCAM IN PANTRY CARS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম রেলওয়ে নেটওয়ার্ক রয়েছে ভারতীয় রেলের। অথচ সেই ভারতীয় রেলের অন্দরেই ফের বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ। এবার নিশানায় রেলের খাবার।

(মৃত্যুর কয়েকঘণ্টা পরই শহিদ জওয়ানের বিবাহবার্ষিকীর উপহার পেলেন স্ত্রী)

অভিযোগ, প্রতিদিন যাত্রীদের কাছ থেকে অবৈধভাবে প্রায় দ্বিগুণ দাম নেওয়া হচ্ছে খাবারের জন্য। বিস্ফোরক এই অভিযোগ করেছেন এক প্রাক্তন আইএএস অফিসার। একটি ফেসবুক পোস্টে প্যান্ট্রি কারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন শিবেন্দ্র কে সিনহা। বিশাখাপত্তনম থেকে যশবন্তপুর-হাওড়া এক্সপ্রেসে চেপে হাওড়ায় আসছিলেন তিনি।

তাঁর অভিযোগ, ভেজ মিলের জন্য তাঁর কাছ থেকে  প্রায় দ্বিগুণ দাম চাওয়া হয়। যে ভেজ মিলের দাম আইআরসিটিসির ওয়েবসাইটে ৫০ টাকা দেখাচ্ছে, সেই মিলের জন্য তাঁর কাছ থেকে ৯০ টাকা চাওয়া হয়। একইভাবে ওই ট্রেনের অন্যান্য যাত্রীদের কাছ থেকে নন-ভেজ মিল, যার দাম ৫৫ টাকা, তার জন্য নেওয়া হয় ১০০ টাকা। জানাজানি হতে তাঁকে গোটা ঘটনাটি চেপে যেতেও জোর করা হয় বলে অভিযোগ।

(এবার প্রভিডেন্ট ফান্ডেও বাধ্যতামূলক আধার কার্ড)

রেলেরই এক কর্মী যখন তাঁর কাছ থেকে ভেজ মিলের জন্য ৯০ টাকা চান, তখনই সন্দেহ হয় সিনহার। তিনি ওই ওয়েটারের কাছ থেকে রেলের রেট কার্ড দেখতে চান। কিন্তু ওই কর্মী রেট কার্ড দেখাতে অসমর্থ হলে সিনহার সন্দেহ হয়। তিনি সোজা রেলের প্যান্ট্রি কারের দিকে এগিয়ে যান। দেখা করেন প্যান্ট্রি কারের ইনচার্জের সঙ্গে। তিনিও রেট কার্ড দেখাতে না পেরে সিনহাকে যুক্তি দেন, দ্রুতই নতুন রেট কার্ড আনা হবে। এরপর তাঁকে গোটা ঘটনাটি চেপে যাওয়ার জন্যও চাপ দেন অভিযুক্ত প্যান্ট্রি কারের ইনচার্জ।

এই অভিযোগ ফেসবুকে পোস্ট করে সিনহা লিখেছেন, প্রতিদিন প্রায় আড়াই কোটি মানুষ রেলে চেপে যাতায়াত করেন। তার মধ্যে যদি ০.০৫ শতাংশ মানুষও রেলের খাবার খান ও এভাবে প্যান্ট্রি কার তাদের কাছ থেকে প্লেট প্রতি ৩০ টাকা বেশি নেয়, তাহলে প্রতিদিন কোটি কোটি টাকা বেআইনিভাবে আয় করেন ওই দুর্নীতিগ্রস্তরা। তাই প্রত্যেক যাত্রীকে খাবারের বিল চাওয়ার আবেদন করেছেন ভুক্তভোগী প্রাক্তন আইএএস অফিসার।

সেই ফেসবুক পোস্ট:

(জানেন কি, দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থায় এত বড় দুর্নীতি চলছে?)

pantry_web

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে