৫ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের মধ্যবিত্তের সঞ্চয়ে কোপ পড়তে চলেছে। ১৫ দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার ফিক্সড ডিপোজিট বা স্থায়ী আমানতে সুদ কমানোর সিদ্ধান্ত নিল দেশের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত্ব ব্যাংক স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া। ফিক্সড ডিপোজিটে ২০ থেকে ২৫ বেসিস পয়েন্ট সুদ কমিয়েছে এসবিআই। এর আগে আগস্ট মাসেই বার দুই স্থায়ী আমানতের সুদ কমানো হয়েছিল। প্রথমে আরবিআই রেপো রেট কমানোর পর ১ আগস্ট সুদ কমানো হয়েছিল। তার দিন পনেরোর মধ্যে ফের সুদ কমানো হয় ১০ থেকে ৫০ বেসিস পয়েন্ট পর্যন্ত। গত ২৬ আগস্টই লাগু হয় নতুন সুদ। তার ১৫ দিনের মধ্যে নতুন করে সুদ কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। এই নিয়ে চলতি আর্থিক বছরে ৫ বার কমল স্বল্প সঞ্চয়ের সুদ।

[আরও পড়ুন: ১০০ দিনে কোনও বিকাশ নেই! মোদি সরকারকে কটাক্ষ রাহুল গান্ধীর]

স্বল্প সময়ের প্রায় সমস্ত রকম ফিক্সড ডিপোজিটেই কমানো হচ্ছে সুদ। ১৮০ থেকে ২১০ দিনের স্থায়ী আমানতে সুদের হার ৬ শতাংশ থেকে কমিয়ে করা হল ৫.৮০ শতাংশ। প্রবীণদের ক্ষেত্রেও এই হার কমানো হয়েছে। প্রবীণদের ক্ষেত্রে সুদের হার ৬.৫০ শতাংশ থেকে কমে হয়েছে ৬.৩০ শতাংশ। ২১১ দিন থেকে ১ বছরের কম পর্যন্ত স্থায়ী আমানতে সুদের হার কমে হল ৫.৮০ শতাংশ। প্রবীণদের ক্ষেত্রে ৬.৫০ শতাংশ থেকে ৬.৩০ শতাংশ। ১ বছর থেকে ২ বছরের কম পর্যন্ত স্থায়ী আমানতে সুদের হার ৬.৭০ শতাংশ থেকে কমে হল ৬.৫০ শতাংশ। প্রবীণদের ক্ষেত্রে এই সুদের হার হল ৭ শতাংশ। স্টেট ব্যাংকের গ্রাহকদের মধ্যে অধিকাংশই মধ্যবিত্ত বা নিম্নবিত্ত। স্বাভাবিকভাবে সুদ কমায় বেশ চিন্তায় পড়বেন নিম্নবিত্ত থেকে শুরু করে মধ্যবিত্তরা। প্রবীণ নাগরিকদের মধ্যেও সবচেয়ে জনপ্রিয় স্টেট ব্যাংক। প্রবীণদের সুদের হার কমাটাও বেশ চিন্তার। ১০ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন সুদের হার লাগু হবে।

[আরও পড়ুন: ‘১০০ দিনে যা হয়েছে তা ৭০ বছরে হয়নি’, বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি]

তবে, কিঞ্চিৎ স্বস্তি পাবেন গৃহঋণগ্রাহীরা। স্থায়ী আমানতের পাশাপাশি গৃহঋণেও সুদ কমিয়েছে এসবিআই। এমএলসিআর ১০ শতাংশ কমিয়ে করা হয়েছে ৮.১৫ শতাংশ। এতদিন এমএলসিআরের হার ছিল ৮.২৫ শতাংশ। তবে, এখনই স্বস্তি পাচ্ছেন না ঋণগ্রাহীরা। কারণ, নতুন সুদের হার লাগু হতে হতে আগামী বছর আগস্ট মাস।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং