২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মালয়েশিয়া থেকে ভারতে নাশকতার ছক ফাঁস করল ‘র’, বাংলা-সহ একাধিক রাজ্যে জারি হাই অ্যালার্ট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: December 14, 2020 11:03 am|    Updated: December 14, 2020 11:03 am

India's intellegence agency busts Malaysia-based Outfit’s Terror Attack Plot | Sangbad Pratidin

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মালয়েশিয়া থেকে ভারতে নাশকতা চালানোর ছক ফাঁস করল গুপ্তচর সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালিসিস উইং বা ‘র’ (RAW)। র-এর পাঠানো গোপন রিপোর্ট জমা পড়েছিল বিদেশমন্ত্রকে এবং প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে। বিশেষ সূত্রে সেই রিপোর্টের কিছু গুরুত্বপূর্ণ অংশ জানতে পেরেছে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে। তাতে জানা গিয়েছে, মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে রোহিঙ্গা মুসলিমদের নেতা মহম্মদ নাসের ভারতে নাশকতা চালাতে দুই লক্ষ ডলার পাঠিয়েছে। চেন্নাইয়ের এক মুসলিম হাওয়ালা ডিলার ওই অর্থ পেয়েছে। তার মাধ্যমেই ভারতে সক্রিয় লোকাল এজেন্টের কাছে সেই অর্থের একটা বড় অংশ পৌঁছে গিয়েছে।

মায়ানমারের জঙ্গলঘেরা গোপন প্রশিক্ষণ শিবিরে এক রোহিঙ্গা মুসলিম যুবতীকে আত্মঘাতী হামলা চালানোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছিল। তার উপরেই অ্যাসাইনমেন্ট ছিল বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করে ওই লোকাল এজেন্টের সঙ্গে দেখা করার এবং দুই লক্ষ ডলারের মধ্যে থেকে তার প্রাপ্য নিয়ে নেওয়ার। নির্দেশ ছিল, এরপর ওই পরিমাণ অর্থ খরচ করে সে দামী রাসায়নিক জোগাড় করে বিস্ফোরক তৈরি করবে। এই কাজের জন্য দুই থেকে তিনজন স্থানীয় জেহাদিকে সে নিয়োগ করবে। তারপর আত্মঘাতী হামলা চালাবে দিল্লি বা মুম্বইয়ের গুরুত্বপূর্ণ কোনও জনবহুল জায়গায়। বড়সড় গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ ঘটানোরও পরিকল্পনা রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘নিজেদের ভুলের মাশুল গুনছেন পাঞ্জাবিরা’, ফের উসকানি দেওয়ার চেষ্টা পাকিস্তানের মন্ত্রীর]

ভারতীয় গোয়েন্দাদের দাবি, ভারতে ওই লোকাল এজেন্ট, হাওয়ালা ডিলার এবং ওই রোহিঙ্গা যুবতীকে এখনও চিহ্নিত করা যায়নি। কিন্তু তারা স্লিপার সেল হিসাবে তাদের কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। এই রিপোর্ট পেয়ে নড়েচড়ে বসেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক, আইবি (IB)। তাদের তরফে চূড়ান্ত সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, পাঞ্জাব, বিহার এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে। গোয়েন্দাদের আশঙ্কা, দিল্লি, অযোধ্যা, বুদ্ধ গয়া, কাশ্মীরের শ্রীনগর-সহ যে কোনও একটি বা দুটি শহরে বড়সড় বিস্ফোরণ বা হামলা চালাতে পারে ওই স্লিপার সেল।

ওই সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, গুপ্তচর সংস্থা ‘র’-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, এই নাশকতার মাস্টারমাইন্ড রোহিঙ্গা নেতা মহম্মদ নাসের গোপন আইডি খুলে হোয়াটসঅ্যাপ মারফত নিয়মিত যোগাযোগ রাখে পলাতক ধর্মগুরু জাকির নায়েকের সঙ্গে। গ্রেপ্তারি এড়াতে জাকির নায়েক ভারত থেকে পালিয়ে মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নিয়েছে। জাকির নায়েক এখন রোহিঙ্গা-সহ কয়েকটি বিচ্ছিন্নতাবাদী মুসলিম সংগঠনের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা হিসাবে কাজ করছে।

[আরও পড়ুন: নিউ ইয়র্কের চার্চে ক্রিসমাস কনসার্টে বন্দুকবাজের হামলা, চলল এলোপাথারি গুলি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে