BREAKING NEWS

৭ কার্তিক  ১৪২৮  সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিদেশের মাটিতে ক্যাম্পাস খোলার অনুমতি পেল দেশীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি

Published by: Avijit Das |    Posted: January 9, 2021 4:15 pm|    Updated: January 9, 2021 4:15 pm

'Institutions of Eminence' can open foreign campus | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের দশটি সরকারি ও দশটি বেসরকারি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়কে ২০১৮তে ইনস্টিটিউশন অফ এমিনেন্স (Institution of Eminence) হিসেব স্বীকৃতি দেয় শিক্ষা মন্ত্রক ( Education Ministry)। এর মধ্যে বেশ কিছু আইআইটিও রয়েছে। এবার সেই স্বীকৃতি প্রাপ্ত সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে দেশের বাইরে ক্যাম্পাস খোলার অনুমতি দিল বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ামক সংস্থা ইউজিসি (UGC)।

এই মর্মে নতুন একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে ইউজিসির পক্ষ থেকে। নতুন নিয়ম অনুযায়ী, আগামী পাঁচ বছরে তিনটি অস্থায়ী ক্যাম্পাস খুলতে পারবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। তবে প্রতি শিক্ষা বর্ষে একটি করেই ক্যাম্পাস খুলতে পারবে তারা। ক্যাম্পাস খোলার আগে শিক্ষা, স্বরাষ্ট্র (Home Ministry) ও বিদেশ মন্ত্রকের (Foreign Ministry) অনুমোদন অবশ্যই নিতে হবে।

[আরও পড়ুন: দেশজুড়ে বার্ড ফ্লু’র আতঙ্ক, মাংস-ডিম খাওয়া নিয়ে বিশেষ নির্দেশিকা WHO’র]

এই তালিকায় একদিকে যেমন রয়েছে আইআইটি দিল্লি (IIT Delhi), মুম্বই (IIT Mumbai) ও বেঙ্গালুরুর ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্সের (Indian Institute of Science)-এর মতো সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম, তেমনই অন্যদিকে মণিপাল অ্যাকাডেমি অফ হায়ার এডুকেশন ও বিটস পিলানির (BITS Pilani) মতো বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও আছে। এছাড়াও রয়েছে রিলায়েন্স ফাউন্ডেশনের (Reliance Foundation) জিও ইনস্টিটিউটের (Jio Institute) নামও।

যেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিদেশে তাদের ক্যাম্পাস খুলতে চাইবে, তাদের শিক্ষা মন্ত্রকের কাছে একটি বিস্তারিত আবেদন পত্র জমা দিতে হবে। সে আবেদন পত্রে একদিকে যেমন থাকবে এই ক্যাম্পাসের আগামী ১০ বছরের শিক্ষা পরিকল্পনা, তেমনই থাকবে শিক্ষা প্রদান, শিক্ষক নিয়োগ, ছাত্র ভরতি-সহ একাধিক প্রক্রিয়ার বিস্তারিত তথ্যও।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও বিদেশ মন্ত্রকের তরফ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়ার পরই শিক্ষা মন্ত্রক সেই ক্যাম্পাস খোলার অনুমতি দেবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি প্রথমে একটি অস্থায়ী ক্যাম্পাস খুলবে। কিন্তু পাঁচ বছরের মধ্যে একটি স্থায়ী ক্যাম্পাস গড়ে তুলতে হবে তাদের। সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে ১০০০ কোটি টাকা অবধি অর্থ সাহায্য করবে সরকার। বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে কোনও অর্থ সাহায্য না করলেও তাদের হাতে আরও বেশি ক্ষমতা প্রদান করা হবে বলে জানানো হয়েছে। 

আরও পড়ুন: নেতাজির জন্মজয়ন্তী পালনে কমিটি মোদির, থাকছেন মমতা-সৌরভ-মিঠুনরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement