BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  রবিবার ২৯ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিজেপি নেতাদের ভিন ধর্মে বিয়েও কি লাভ জেহাদ? প্রশ্ন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: November 22, 2020 1:56 pm|    Updated: November 22, 2020 1:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লভ জেহাদ নিয়ে এবার বিজেপিকেই (BJP) আক্রমণ করলেন ছত্তিশগড়ের (Chhattisgarh) মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল (Bhupesh Baghel)। বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা প্রশ্ন তুলে দিলেন, বিজেপি নেতারা তো বিয়ের জন্য ধর্ম পরিবর্তন করাকে লাভ জেহাদ (Love jihad) বলছেন। কিন্তু যদি বিজেপি সদস্যদের পরিবারের কেউ ভিন ধর্মে বিয়ে করে তাহলেও কি তা লাভ জেহাদ বলে ধরা হবে?

এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই প্রশ্ন তোলেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘‘অনেক বিজেপি নেতার পরিবারের সদস্যরা ভিন্ন ধর্মে বিয়ে করেছেন। আমি জানতে চাই, বিজেপি নেতা ও তাঁদের সন্তানরা এমন বিয়ে করলে তাও কি লাভ জেহাদের মধ্যে পড়বে?’’ তাঁর এই প্রশ্নের মধ্যে প্রচ্ছন্ন ছিল কটাক্ষ।

[আরও পড়ুন: বরাদ্দ কম, করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে উদ্বেগে সংসদীয় কমিটি, তোপ কেন্দ্রকে]

সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath) ঘোষণা করেছেন তাঁরা  ‘লাভ জেহাদ’ রুখতে নয়া আইন আনতে চলেছেন। ইতিমধ্যে নয়া আইন আনতে রাজ্যের আইন বিভাগের কাছে একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্রদপ্তর। এর আগেই তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছিলেন, হিন্দু মেয়েদের প্রেমের ফাঁদে ফেলতে যাঁরা পরিচয় গোপন করছেন তাঁরা যেন নিজেদের ভুল শুধরে নেন। নাহলে ‘রাম-নাম সত্য’ হয়ে যাবে।এদিকে মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানও জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁদের রাজ্যেও খুব দ্রুত এই বিষয়ে আইন আনা হবে। একের পর এক বিজেপি শাসিত রাজ্য লাভ জেহাদের বিরুদ্ধে আইন আনার কথা জানাচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে এই প্রশ্ন তুললেন ভূপেশ বাঘেল।

প্রসঙ্গত, হরিয়ানার বল্লভগড়ে ধর্ম বদলে রাজি না হওয়ায় প্রকাশ্যে এক যুবতীকে গুলি করে খুন করার অভিযোগ ওঠে এক যুবকের বিরুদ্ধে। তারপরই দেশজুড়ে লাভ জেহাদ নিয়ে শুরু হয় জোর বিতর্ক। সেই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খাট্টার দাবি করেছিলেন, দোষীরা যেন বাঁচতে না পারে এবং কোনও নির্দোষের যাতে সাজা না হয় সেদিকে লক্ষ্য রেখে রাজ্যে আইন আনার কথা ভাবছেন তাঁরা। সেই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, লাভ জেহাদের বিষয়ে আইন আনার ব্যাপারে ভাবনাচিন্তা করছে কেন্দ্রও। এদিকে সম্প্রতি এলাহাবাদ হাই কোর্ট এক রায়ে জানিয়েছে, স্রেফ বিয়ের জন্য ধর্মান্তকরণ গ্রহণযোগ্য নয়।

[আরও পড়ুন: উগ্র জাতীয়তাবাদকে মহামারীর সঙ্গে তুলনা! হামিদ আনসারিকে তুলোধোনা হিন্দু মহাসভার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement