BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

পদ পাইয়ে দিতে ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ, স্মৃতি ইরানির বিরুদ্ধে মামলা আন্তর্জাতিক শ্যুটারের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 26, 2020 8:49 am|    Updated: December 26, 2020 8:49 am

International shooter Vartika Singh has moved a court accusing Union minister Smriti Irani and two others |Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির (Smriti Irani) বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ আনলেন আন্তর্জাতিক মানের শ্যুটার বর্তিকা সিং। তাঁর অভিযোগ, স্মৃতি ইরানি এবং তাঁর দুই সহযোগী তাঁকে জাতীয় মহিলা কমিশনের পদ পাইয়ে দেওয়ার জন্য মোটা অঙ্কের ঘুষ চেয়েছেন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব এবং আরেক ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করেছেন বর্তিকা (Vartika Singh)। যদিও, ওই শ্যুটারের সব দাবি খারিজ করে তাঁর বিরুদ্ধে পালটা মানহানির মামলা করেছেন স্মৃতির সচিব বিজয় গুপ্তা।

বর্তিকা সিংয়ের অভিযোগ, জাতীয় মহিলা কমিশনের (National Commission for Women) সদস্যপদ পাইয়ে দেওয়ার জন্য স্মৃতি ইরানি এবং তাঁর দুই ঘনিষ্ঠ তাঁর কাছে প্রথমে এক কোটি টাকা চান। তিনি ওই টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় চাহিদা কমিয়ে ২৫ লক্ষ টাকা করেন স্মৃতির দুই ঘনিষ্ঠ। ওই শ্যুটারের অভিযোগ, টাকা আদায়ের জন্য তাঁকে কেন্দ্রীয় মহিলা কমিশনের (Central Women’s Commission) নামে একটি ভুয়ো চিঠিও দিয়েছিলেন স্মৃতির ঘনিষ্ঠরা। ওই দুই ব্যক্তি তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। আগামী ২ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলার শুনানি হবে এমপি-এমএলএ কোর্টে।

[আরও পড়ুন: আবুল কালাম আজাদের মধ্যে ‘ভারতীয়ত্ব’ ছিল না! বিজেপি নেতার মন্তব্যে বিতর্কের ঝড়]

যদিও, এর পালটা দাবি এসেছে স্মৃতি শিবির থেকেও। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সচিব বিজয় গুপ্তার অভিযোগ, ওই শ্যুটার তাঁদের বদনাম করার জন্য ভুয়ো অভিযোগ করছেন। অনেক আগেই ওই শ্যুটারের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছিলেন তাঁরা। বস্তুত, বর্তিকা সিংয়ের বিরুদ্ধে গত ২৩ নভেম্বর আমেঠির মুসাফিরখানা থানায় একটি মানহানির মামলা দায়ের করেন বিজয়। তাঁর দাবি ছিল, ভুয়ো অভিযোগ এনে বর্তিকা সিং তাঁর সম্মানহানি করার চেষ্টা করছেন। স্মৃতি ইরানির ঘনিষ্ঠর ওই অভিযোগ অস্বীকার করে বর্তিকা সিং আবার পালটা দাবি করেছেন, স্মৃতির ‘দুর্নীতি’র তথ্য ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি দেওয়ার দরুনই তাঁর বিরুদ্ধে এই মিথ্যে মামলা সাজানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: নীতীশকে পিছন থেকে ছুরি বিজেপির! গেরুয়া শিবিরে যোগ জেডিইউয়ের ৬ বিধায়কের]

অভিযোগ, পালটা অভিযোগের এই খেলায় এই মুহূর্তে কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে স্মৃতি। কারণ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থাকাকালীন এখনও পর্যন্ত তাঁর বিরুদ্ধে সরাসরি দুর্নীতির কোনও অভিযোগ আসেনি। স্বাভাবিকভাবেই, আমেঠির সাংসদ দ্রুত এই অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে চাইবেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে