৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় বুধবার প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরমকে গ্রেপ্তার করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। দিল্লির তিহার জেলে এদিন সকালে ইডির অফিসাররা চিদাম্বরমকে জেরা করেন। সেই সময় জেলে উপস্থিত ছিলেন তাঁর ছেলে কার্তি এবং স্ত্রী নলীনি চিদাম্বরম। জিজ্ঞাসাবাদের পরই চিদাম্বরমকে গ্রেপ্তার করে ইডি।

সিবিআইয়ের এফআইআর-এর ভিত্তিতে বিশেষ আদালতের দেওয়া রায় অনুযায়ী বৃহস্পতিবার শেষ হওয়ার কথা ছিল প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর বিচারবিভাগীয় হেফাজতের মেয়াদ। ঠিক তার দু’দিন আগে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি পেয়ে গিয়েছিল ইডি। সোমবারই ইডির পক্ষে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা চিদম্বরমকে হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করেন। তাঁর বক্তব্য শুনলেও কোনও রায় দেননি বিচারপতি অজয় কুমার কুহার। মঙ্গলবার আরও একবার দুইপক্ষের বক্তব্য শোনেন। ইডির দাবি ছিল, জরুরি ভিত্তিতে তারা চিদম্বরমকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায়। পালটা প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীর আইনজীবী কপিল সিবালের সওয়াল ছিল যে, সিবিআই ও ইডি দুই সংস্থাই চিদম্বরমের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ এনেছে। সেক্ষেত্রে একই অভিযোগে আলাদা করে হেফাজতে নেওয়ার কোনও মানে হয় না।

[আরও পড়ুন: দাউদ ঘনিষ্ঠের থেকে সম্পত্তি ক্রয়, প্রফুল প্যাটেলকে তলব ইডির]

সব শুনে বিচারপতি ইডিকে দু’টি বিকল্প দেন। এক, ইডি আধিকারিকরা মঙ্গলবারই তিহার জেলে গিয়ে দেড় ঘণ্টার জন্য তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন। দুই, বুধবার তিহার জেলে গিয়ে তাঁকে হেফাজতে নেওয়া। এরপর তুষার মেহতা বলেন, ইডি আধিকারিকরা আদালত চত্বরেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান। উত্তরে বিচারপতি বলেন, চিদম্বরমের সম্মানের কথা মাথায় রেখে এভাবে জনসমক্ষে তাঁর অনুমতি দেওয়া সম্ভব নয়। ইডি দ্বিতীয় ব্যবস্থা নিতে রাজি হলে ঠিক হয়, বুধবার ইডি আধিকারিকরা তিহার জেলে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন। সেই মতোই জেলের অন্দরে এদিন জিজ্ঞাসাবাদের পর গ্রেপ্তার করা হয় তাঁকে।

[আরও পড়ুন: ফের মহারাষ্ট্রে ভেঙে পড়ল বহুতল, ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকে বহু]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং