BREAKING NEWS

১৫ মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

পেগাসাসের পরে ড্রোন দিয়ে নজরদারি সীমান্তে! বন্ধুরাষ্ট্র ভারতকে ফের সাহায্য ইজরায়েলি সংস্থার

Published by: Anwesha Adhikary |    Posted: July 14, 2022 6:30 pm|    Updated: July 14, 2022 6:44 pm

Israeli company to supply drone for India to keep watch on India-Pakistan border | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বন্ধুরাষ্ট্র ভারতকে ফের সাহায্য করতে চলেছে ইজরায়েল। পাক সীমান্তে নজরদারি চালানোর জন্য ৬৭টি ড্রোন পাঠাবে ইজরায়েল (Israel) সরকারের অধীনস্ত একটি কোম্পানি। জানা গিয়েছে, এই ড্রোনগুলি হেলিকপ্টারের মতো দেখতে হবে। শক্তিশালী ক্যামেরা মোতায়েন করা হবে এই হেলিকপ্টার গুলিতে। হিমাঙ্কের নীচে তাপমাত্রা থাকলেও সাবলীল ভাবে কাজ করবে এই ড্রোনগুলি। এই ড্রোন তৈরি করার বরাত দিতে টেন্ডারের আয়োজন করা হয়েছিল। জোর টক্কর হয় আমেরিকা এবং ইজরায়েলি সংস্থার মধ্যে।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, এপ্রিল মাসে ড্রোন (Surveillance Drone) তৈরির টেন্ডার ডাকা হয়েছিল। তিনশো কোটি ডলারের বিনিময়ে ইজরায়েল এরোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজের হাতেই ড্রোন তৈরির বরাত দেওয়া হয়। কমপক্ষে পাঁচশো মিটার উচ্চতায় উড়তে সক্ষম এই হেলিকপ্টারগুলি। তবে এই ড্রোনগুলি তৈরি করা হবে ভারতেই। অবিকল হেলিকপ্টারের মতোই আকাশে উড়তে পারবে এই ড্রোন। আকাশে উড়তে উড়তেই ছবি ও ভিডিও তুলতে পারবে ড্রোনে থাকা ক্যামেরাগুলি। একটানা ৪৫ মিনিটের বেশি কাজ করতে পারবে এই ক্যামেরা।

[আরও পড়ুন: ‘চাকরির জন্য মায়ের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যায় না’, মন্তব্য বম্বে হাই কোর্টের]

ভারত-পাক সীমান্তে (LoC) কাজ করা এই ড্রোনের মূল বৈশিষ্ট্য হল, ছবি তোলার সঙ্গে সঙ্গেই পাঠিয়ে দিতে পারে ক্যামেরাগুলি। রাতের অন্ধকারেও সমান ভাবে কাজ করতে সক্ষম এই ড্রোন ক্যামেরা। আবহাওয়ার পরিবর্তন হলেও ড্রোন ক্যামেরার কাজে প্রভাব পড়বে না। প্রতি সেকেন্ডে দশ মিটার গতিবেগে উড়তে পারবে এই ড্রোন। দুই কিলোমিটার দূরে থাকা জিনিসের ছবি তুলতে পারবে এই ক্যামেরা। যদি আকাশে থাকা অবস্থায় বিকল হয়ে যায় এই ড্রোন, তাহলেও ভেঙে পড়বে না। যে জায়গা থেকে আকাশে ওড়ানো হয়েছিল, সেখানেই ফিরে আসবে এই ড্রোন। জানা গিয়েছে, রাজস্থান, পাঞ্জাব এবং গুজরাটের পাক সীমানায় (India-Pakistan Border) কাজে লাগানো হবে এই ড্রোন।

ভারতের নিরাপত্তা ক্ষেত্রে বরাবরই সাহায্য করেছে ইজরায়েল। পাকিস্তানে সার্জিকাল স্ট্রাইকের সময়ও ইজরায়েলি বোমা ব্যবহার করা হয়েছিল। প্রসঙ্গত, রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে স্পাইওয়্যার পেগাসাস ব্যবহার করেছিল বিজেপি সরকার। সেই সফটওয়্যারও তৈরি করেছিল ইজরায়েলি সংস্থা। ভারতে তৈরি হওয়া এই ড্রোন ব্যবহার করলে আর্থিক দিক থেকে সাশ্রয় হবে বলেই ধারণা কেন্দ্রীয় সরকারের। সেই কারণেই মার্কিন সংস্থাকে ড্রোন তৈরির বরাত দেওয়া হয়নি।

[আরও পড়ুন: জুবেইরকে জেল হেফাজত হাথরস আদালতের, ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ সাংবাদিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে