৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্পেস স্টেশন বানানোর ক্ষমতা রয়েছে ভারতের: ইসরো চেয়ারম্যান

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 21, 2017 5:18 am|    Updated: February 21, 2017 5:26 am

isro chairman says india can develop a space station

যেদিন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে, সেদিন থেকেই শুরু হয়ে যাবে কাজ।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহাকাশে ১০৪টি উপগ্রহ পাঠিয়ে ইতিহাস সৃষ্টির পরে আরও একটি নতুন পদক্ষেপ করতে চলেছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরো। আগামী কয়েকবছরের মধ্যে মহাকাশে স্পেস স্টেশন বানানো হতে পারে। সেই ক্ষমতা ভারতের রয়েছে। ইসরো চেয়ারম্যান এ এস কিরণ কুমারের এই বক্তব্যের পরেই শুরু হয়েছে জল্পনা। কয়েকদিন আগে বেজিং ইসরোর সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েও কটাক্ষ করে বলেছিল, মহাকাশ গবেষণায় ভারতের যা সাফল্য তা অনেকদিন আগেই অর্জন করে ফেলেছে চিন। তার পাল্টা দিতেই ইসরো চেয়ারম্যানের এই মন্তব্য বলে মনে করা হচ্ছে।

জঙ্গিদের জামিন বা প্যারোলে মুক্তি নয়: সুপ্রিম কোর্ট

ইন্দোরে একটি অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে তিনি বলেন, ‘স্পেস স্টেশন তৈরি করার মত ক্ষমতা ভারতের রয়েছে। যেদিন দেশ সিদ্ধান্ত নেবে, দেশের সরকার ঠিক করবে আমরা কাজ শুরু করে দেব। শুধু নীতি নির্ধারণ করুন এবং আমাদের সময় ও অর্থের যোগান দিন তাহলেই হবে।’ এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেন, ‘মহাকাশে মানুষ পাঠানোর সঙ্গে দেশের সার্বিক উন্নয়নের কোনও সম্পর্ক আছে কিনা সেটা নিয়ে আলোচনা চলছে। তাই স্পেস স্টেশন তৈরির ব্যাপারেও দোটানায় রয়েছে ভারত। তাছাড়া দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনাও প্রয়োজন।’ তবে ইসরো চেয়ারম্যানের আর্জি যত দ্রুত সম্ভব এই পরিকল্পনা নিতে হবে।

কুমার আরও জানান, ইসরোর মূল লক্ষ্য হল মহাকাশে উপগ্রহ পাঠানোর ক্ষমতাকে আরও বাড়িয়ে তোলা। কারণ ভবিষ্যতে আবহাওয়া এবং যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতির জন্য আরও অনেক উপগ্রহ মহাকাশে পাঠাতে হবে। তাই আমাদের পরিকাঠামোকে আরও বাড়িয়ে তুলতে হবে। পাশাপাশি দামও কমাতে হবে। বহু সংস্থা আছে যারা ছোট ছোট উপগ্রহ তৈরি করতে পারলেও সেগুলিকে মহাকাশে পাঠাতে পারে না। আমরা সেই বাজারটিকেই ধরতে চাই।

ঋতব্রতর বিরুদ্ধে কড়া শাস্তির দাবি উঠবে রাজ্য কমিটিতেও

মহাকাশে একসঙ্গে ১০৪ টি উপগ্রহ পাঠিয়ে যে সাফল্য পেয়েছিল ইসরো। তার জন্য গোটা বিশ্ব অভিনন্দন জানিয়েছিল। কিন্তু প্রতিবেশী রাষ্ট্র চিনের প্রশংসার মধ্যে যেন ছিল কটাক্ষ। শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি বেজিংয়ের তরফ থেকে বলা হয়েছিল, ভারত যে সাফল্য পেয়েছে, অনেকদিন আগেই সেটা চিন অর্জন করে ফেলেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, চিনকে জবাব দিতেই কুমারের এদিনের মন্তব্য।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে