১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ঘুষকাণ্ডের জের, ফের গ্রেপ্তার বিজেপির প্রাক্তন মন্ত্রী জনার্দন রেড্ডি

Published by: Shammi Ara Huda |    Posted: November 11, 2018 5:40 pm|    Updated: November 11, 2018 5:40 pm

Janardhan Reddy arrested in bribery case

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘুষকাণ্ডে ফেঁসে ফের গ্রেপ্তার বিজেপির প্রাক্তন মন্ত্রী গালি জনার্দন রেড্ডি। শনিবার সন্ধ্যায় বেঙ্গালুরু পুলিশ ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে বল্লারির এই খনি মাফিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে। একই সঙ্গে গ্রেপ্তার হয়েছে জনার্দন রেড্ডির সহযোগী আলি খান। এর আগেও বিভিন্ন দুর্নীতি মামলায় ফেঁসে তিন বছর জেলে কাটিয়েছেন কর্ণাটকের বিএস ইয়েদুরাপ্পা সরকারের এই মন্ত্রী। কিছুদিন আগেই জামিনে মুক্তি পেয়ে ফের পুরনো কাজকর্ম শুরু করেছেন বলে খবর।

এদিকে প্রাক্তন মন্ত্রীর গ্রেপ্তারি নিয়ে মুখ খুলেছেন বেঙ্গালুরুর পুলিশ কর্তা অলোক কুমার। তিনি বলেন, ‘জনার্দন রেড্ডি ঘুষ নিয়েছেন। এই ঘটনার বিশ্বাসযোগ্য তথ্যপ্রমাণ ও বিবৃতি হাতে আসার পরেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। খুব শিগগির জনার্দন রেড্ডিকে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে পেশ করা হবে। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন লগ্নিকারী সংস্থার থেকে তিনি যে ঘুষ নিয়েছেন সেই টাকা উদ্ধারের কাজ শুরু হয়েছে। টাকা পেয়ে গেলেই সংল্থাগুলিকে তা ফিরিয়ে দেওয়া হবে।’

[গোয়ায় গো-মাংস নিষিদ্ধ হলেই সুস্থ হবেন পারিকর, চক্রপাণির দাবিতে বিতর্ক]

জানা গিয়েছে, ঘুষকাণ্ডে ফের ফাঁসতে চলেছেন। বিষয়টি বুঝতে পেরেই গা-ঢাকা দেওয়ার চেষ্টায় ছিলেন এই খনি মাফিয়া। সেজন্য বেঙ্গালুরু থেকে পালিয়ে যান। পুলিশও পিছু নেয় তাঁর। তিনদিন পুলিশের সঙ্গে রীতিমতো লুকোচুরি খেলার পর বিশ্রামের আশায় ছিলেন জনার্দন রেড্ডি। ঠিক সেইসময়ই সোজা পুলিশেরই খপ্পরে গিয়ে পড়লেন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে নিজামের শহরের এক অভিজাত হোটেল থেকে খনি মাফিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জেরায় বেআইনি লগ্নিকারী সংস্থার মালিকের থেকে ১৮ কোটি টাকা ঘুষ নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন জনার্দন রেড্ডি। বেঙ্গালুরুর ওই সংস্থার নাম অ্যামবিডেন্ট গ্রুপ। সংস্থার মালিক সৈয়দ আহমেদ ফরিদ। লগ্নিকারী সংস্থাটি সাধারণ মানুষকে ভুল বুঝিয়ে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করছে। এই খবর প্রশাসনের কাছে আসার পরই শুরু হয় নজরদারি। সেখানই ওই সংস্থার আসল উদ্দেশ্য ধরা পড়ে যায়। সেই সময় কর্ণাটকে ক্ষমতাসীন বিএস ইয়েদুরাপ্পার সরকার। বেআইনি লগ্নিকারী সংস্থা সাধারণ মানুষকে ঠকাচ্ছে।খবর পেয়েই সংস্থার মালিকের সঙ্গে শহরের এক হোটেল বৈঠকে বসেন জনার্দন রেড্ডি। মামলা থেকে অব্যাহতি দিতে সৈয়দ আহমেদ ফরিদের কাছে মোটা অঙ্কের অর্থ দাবি করেন প্রাক্তন মন্ত্রী। শেষপর্যন্ত ১৮ কোটি টাকায় রফা হয়। এইভাবে টাকা নিয়ে বেআইনি লগ্নিকারী সংস্থার অভিযোগ ধামাচাপা দিয়ে দেন জনার্দন রে়ড্ডি।

সম্প্রতি জনার্দন রেড্ডির কুকীর্তির প্রসঙ্গ নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু করেছে বেঙ্গালুরু পুলিশ। সেই সময়ই এই বিরাট অঙ্কের ঘুষকাণ্ডের বিষয়টি প্রকাশ্যে চলে আসে। এরপরই খনি মাফিয়ার গতিবিধি নজরে রেখে শনিবার হায়দরাবাদ থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। এই গ্রেপ্তারি নিয়ে আপাতত মুখে কুলুপ এঁটেছে পুলিশ। প্রাক্তন মন্ত্রীর কীর্তি কলাপে নীরব কর্ণাটকের বিজেপি নেতৃত্বও।

[নামবদল ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে, এবার যোগীকে বিঁধলেন তাঁরই মন্ত্রিসভার সদস্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে