Advertisement
Advertisement

বিয়েতে অরাজি, প্রকাশ্যে তরুণীকে পুড়িয়ে মারল প্রাক্তন সহকর্মী

কোথায় ঘটল এমন নারকীয় ঘটনা?

Jilted lover torches woman on Hyderabad road
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:December 22, 2017 8:56 am
  • Updated:December 22, 2017 8:56 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছর বাইশের এক তরুণীর পিছু নিয়েছিল তাঁর এক প্রাক্তন সহকর্মী। বেশ কয়েকবার বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিল সে। কিন্তু, রাজি ছিলেন না ওই তরুণী। অভিযোগ, সেই রাগেই প্রকাশ্যে রাস্তায় ওই তরুণীকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারল ওই তরুণ। নারকীয় ঘটনাটি ঘটেছে অন্ধ্রপ্রদেশের হায়দরাবাদে

[সংসারে নিত্য অশান্তি, গাড়ির ভিতরে দুই স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারল এক ব্যক্তি!]

Advertisement

সেকেন্দ্রাবাদ শহরে একটি বেসরকারি সংস্থার রিসেপশনিস্ট ছিলেন বছর বাইশের সন্ধ্যা রানি। পুলিশ জানিয়েছেন, বছর দুয়েক আগেই ওই সংস্থায় চাকরি করতেন অভিযুক্ত কার্তিক। একসময়ে দুজনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতাও ছিল। পরবর্তীকালে সম্পর্কের অবনতি হয়। কিন্তু, সন্ধ্যা পিছু ছাড়েনি কার্তিক। গত বেশ কয়েক মাস ধরেই ওই তরুণীকে বিরক্ত করত সে। এমনকী, ফোনে বিয়ের প্রস্তাবও দিয়েছিল সে। কিন্তু, কার্তিককে বিয়ে করতে চাননি সন্ধ্যা। সেই অপরাধেরই পুড়ে মরতে হল ওই তরুণীকে।

Advertisement

[দিল্লিতে নির্ভয়া কাণ্ডের ছায়া, যুবতীকে গণধর্ষণে অভিযুক্ত পাঁচ নাবালক]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধে পৌনে সাতটা নাগাদ অফিসে থেকে বাড়ি ফিরছিলেন সন্ধ্যায়। সেকেন্দ্রারাবাদ এলাকার কাছে তাঁর পথ আটকায় কার্তিক। দুজনেই মধ্যে বেশ কিছুক্ষণ কথা কাটাকাটি হয়। অভিযোগ, এরপরই আচমকাই সন্ধ্যায় গায়ে কেরোসিন ঢেলে দেয় কার্তিক এবং আগুন লাগিয়ে দিয়ে পালিয়ে যায়। জ্বলন্ত শরীরে রাস্তায় ছোটাছুটি করতে শুরু করেন সন্ধ্যা। চিৎকার শুনে ছুটে আসেন পথচলতি মানুষ। ওই তরুণীকে উদ্ধার হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁরা। শুক্রবার সকালে হাসপাতালে মারা যান সন্ধ্যা। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সন্ধ্যার শরীরের ৬০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।

[ভণ্ড বাবার যৌন লালসার শিকার, দিল্লির আশ্রম থেকে উদ্ধার ৪০ নাবালিকা]

অভিযুক্ত কার্তিককে গ্রেপ্তার করেছে সেকেন্দ্রাবাদ পুলিশ। পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, গত দু’বছর ধরে বেকার কার্তিক। বেকারত্বের জ্বালা ভুলতে বেহিসেবি জীবনযাপন করতে শুরু করেছিল সে। নিয়মিত চলত মদ্যপান। মানসিক অবসাদেও ভুগছিল অভিযুক্ত। কিন্তু, ওই পরিস্থিতিতেও সন্ধ্যাকে বিরক্ত করত কার্তিক। চাকরি ছেড়ে বিয়ের জন্য চাপ দিত। জেরায় কার্তিক জানিয়েছে, বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সন্ধ্যাকে পুড়িয়ে মেরেছে সে।

[শিক্ষকের পিঠে ম্যাসাজ করছে পড়ুয়া, দেখুন ভাইরাল ভিডিও]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ