BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৮  রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

পরপর ব্যর্থতার জেরে রীতি ভাঙল BJP! গোয়ায় মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা Nadda’র

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 25, 2021 5:15 pm|    Updated: July 25, 2021 6:21 pm

JP Nadda announces Pramod Sawant will be BJP's CM face for 2022 Goa polls | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের আগে কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হয় না। মোদি-শাহর (Amit Shah) আমলে এটাই বিজেপির অঘোষিত নীতি। কিন্তু এবার সেই নীতির ব্যতিক্রম হল। গোয়ায় আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda)। জানিয়ে দিলেন, বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ন্তই ২০২২ নির্বাচনে গোয়া বিজেপির মুখ হতে চলেছেন।

সেই ২০১৭ উত্তরপ্রদেশ নির্বাচন থেকে শুরু হয়েছিল। তারপর একে একে বহু রাজ্যে নির্বাচন গিয়েছে। ভোটের আগে সরকারিভাবে অধিকাংশ রাজ্যেই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়নি। ২০১৭ নির্বাচনের আগে যোগী আদিত্যনাথকেও (Yogi Adityanath) মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করেনি বিজেপি। আবার ২০২১ বাংলা নির্বাচনের আগেও কাউকে মুখ করা হয়নি। মাঝখানে যেসব রাজ্যগুলিতে বিজেপি ক্ষমতাসীন অবস্থায় নির্বাচনে গিয়েছে, সেই সব রাজ্যগুলিতে বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রীরাই প্রচারের নেতৃত্বে ছিলেন বটে, তবে সেটা অঘোষিতভাবে। কিন্তু গোয়ার ক্ষেত্রে নাড্ডা একপ্রকার সর্বসমক্ষে ঘোষণা করলেন,”প্রমোদ সাওয়ন্তের (Pramod Sawant) নেতৃত্বে গোয়ার প্রচুর উন্নয়ন হয়েছে। আমরা তাঁর নেতৃত্বেই আগামী নির্বাচনে নামব। এমনিতে এই ঘোষণা পরিষদীয় দলের তরফে করা হয়। তবে, আমি বলব এখানে আর অন্য কোনও নাম নিয়ে ভাবনা চিন্তা করারই দরকার নেই।”

[আরও পড়ুন: সামনে বড় লড়াই, বিজেপিকে হারাতে জোট বাঁধতে পারে Congress-TMC!]

কিন্তু প্রশ্ন হল, কেন হঠাত বিজেপির এই রীতি বদল? আসলে বিগত কয়েকটি নির্বাচনে দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম না ঘোষণা করায় ব্যর্থতার মুখ দেখতে হয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। যার সবচেয়ে বড় উদাহরণ বাংলা। তাই গোয়ার ক্ষেত্রে হয়তো রীতি পালটাতে চাইছে বিজেপি। তাছাড়া, বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রীকে ফের পদপ্রার্থী হিসাবে ঘোষণা করা হল দলের কর্মীদের আত্মবিশ্বাস বাড়ে। ঠিক যে কারণে, অন্য রাজ্যগুলিতে মুখ্যমন্ত্রীর পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয় না, সেই গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের তেমন আশঙ্কা গোয়ায় নেই। কারণ, সেরাজ্যে প্রমোদ সাওয়ন্তের সমকক্ষ নেতা BJP-তে নেই। তাছাড়া, উত্তরাখণ্ড, কর্ণাটকের মতো রাজ্যে আগে থেকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম না ঘোষণা করার ফলে এখন জ্বালা সামলাতে হচ্ছে গেরুয়া শিবিরকে। ক্ষমতায় থাকা সত্ত্বেও দলের গোষ্ঠীদ্বন্দের ফলে মাঝপথে মুখ্যমন্ত্রী বদল করতে হচ্ছে। উত্তরাখণ্ডে তো একাধিকবার মুখ্যমন্ত্রী বদল করে ফেলল গেরুয়া শিবির। তাই এবার বিজেপি ঠিক করেছে, একেবারে ভোটের আগে থেকেই দলের সর্বস্তরে স্পষ্ট করে দেওয়া হবে, দলের নেতাকে। তাছাড়া, গোয়ায় এই মুহূর্তে বিরোধী শিবিরের অবস্থা তথৈবচ। তাই জয় নিয়ে তেমন সংশয় নেই গেরুয়া শিবিরের অন্দরে।

এখন প্রশ্ন হল, গোয়ার পাশাপাশি অন্য রাজ্যগুলিতেও কি একইভাবে মুখ্যমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হবে? সেক্ষেত্রে উত্তরপ্রদেশেও কি যোগীর উপরই বাজি ধরবে বিজেপি? কারণ, গোয়ার সঙ্গেই উত্তরাখণ্ড, উত্তরপ্রদেশ (Uttar Pradesh) এবং পাঞ্জাবের নির্বাচন হওয়ার কথা। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×