৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘স্বৈরতন্ত্র চালাচ্ছে মোদি সরকার’, কাশ্মীর ইস্যুতে সরব কমল হাসান

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 6, 2019 12:39 pm|    Updated: August 6, 2019 12:39 pm

Kamal Haasan slams scraping of article 370 by Modi govt

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  সোমবার, ৫ আগস্ট ২০১৯, ঐতিহাসিক বিল পেশ করল মোদি সরকার ২.০৷ ভূস্বর্গে লাগু হওয়া বিতর্কিত ৩৭০ ও ৩৫এ ধারার বিলুপ্তি ঘটিয়ে জম্মু-কাশ্মীর মানচিত্রের পুনর্জন্ম হল। রাজ্যের তকমা হারিয়ে উপত্যকায় তৈরি হল দু’টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাদাখ ও জম্মু-কাশ্মীর৷ বলিউডের মোদিপন্থীরা ধন্য ধন্য করলেও কেন্দ্রের এই পদক্ষেপে মোটেই খুশি নন দক্ষিণী সুপারস্টার তথা মাক্কাল নিধি মাইয়মের সুপ্রিমো কমল হাসান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সোমবার যে পদক্ষেপ নিয়েছেন, তাকে ‘স্বৈরতন্ত্রী’ বলে কটাক্ষ করেন কমল।

[আরও পড়ুন: ৩৭০ ধারা বিলুপ্তিতে বলিউডে খুশির হাওয়া, মুখ খুললেন কাশ্মীরি পণ্ডিত অনুপম খের ]

জম্মু ও কাশ্মীরের থেকে বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহার করে নিয়ে রাজ্যকে দুই ভাগে ভাগ করে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল তৈরি করাটা একেবারে ‘গণতন্ত্রকে হেনস্তার শামিল’। এমনটাই মত অভিনেতার। মোদি সরকারের এই সিদ্ধান্তকে পশ্চাদগামী ও স্বৈরতান্ত্রিক বলেও কটাক্ষ করেছেন তিনি। তামিলনাডুর মাক্কাল নিধি মাইয়মের প্রতিষ্ঠাতা কমল হাসান বলেছেন, “৩৭০ ও ৩৫এ ধারার সূচনা অযথা হয়নি। এর নেপথ্যে কিছু গুরুতর কারণ ছিল। তাই কেন্দ্রীয় সরকারের এই হঠকারী সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করছি। এছাড়া আমার মনে হয়, দেশের কোনও আইন বদল বা বাতিলের সিদ্ধান্তই সংঘবদ্ধভাবে হওয়া উচিত। কিন্তু মোদি সরকারের তরফে তা কারও সঙ্গে আলোচনা না করেই করা হয়েছে।”

স্বৈরতান্ত্রিক শাসন চালাচ্ছে মোদি সরকার।

পাশাপাশি বিরোধীদের সুরে সুর মিলিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে কমল হাসানের অভিযোগ, “বিরোধীদের সঙ্গে আলোচনা না করে, সংসদে কোনওরকম আলোচনা না করে, কারও মত না শুনেই নিজেদের ইচ্ছে মতো সব সিদ্ধান্ত নিচ্ছে তাঁরা। স্বৈরতন্ত্রী শাসন চালাচ্ছে মোদি সরকার।” সোমবার, ৫ আগস্ট কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রস্তাব করার সঙ্গে সঙ্গেই বিরোধীরা সমস্বরে সোচ্চার হয় এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে। গণতন্ত্রকে খুন করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন বিরোধীরা।

[আরও পড়ুন: ‘মোদি-শাহকে মন থেকে ধন্যবাদ’, ৩৭০ ধারার বিলুপ্তিতে খুশি কাশ্মীরি পণ্ডিত ভরত কল]

শুধু কমলই নন, কেন্দ্রীয় সরকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন বলিউড পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও।” জানেন ভয়টা কোথায়? যখন একটা মানুষ মনে করেন যে তিনিই সব ঠিক করছেন, আর বাকি সবাই ভুল এবং তিনি ক্ষমতার শীর্ষে বসে রয়েছেন”, বলেন অনুরাগ কাশ্যপ। 

উল্লেখ্য এর আগেও মোদি সরকারকে কটাক্ষ করে সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন কমল হাসান। তবে সরকারের সমর্থনে মুখ খুলেছেন কঙ্গনা রানাউত, পরেশ রাওয়াল, অনুপম খের-সহ আরও অনেকে। প্রসঙ্গত, নয়া আইনে বাতিল হয় জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা। এছাড়াও স্থায়ী বাসিন্দা সংক্রান্ত ৩৫-এ ধারাও খারিজ করা হয়। এর ফলে বিধানসভা থাকলেও, কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হয়ে যায় জম্মু ও কাশ্মীর। লাদাখও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের আওতাভুক্ত হয়। তবে লাদাখে বিধানসভা থাকবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে