২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিতর্কিত মন্তব্যের জের, জোটসঙ্গীদের তোপের মুখে কমল নাথ

Published by: Tanujit Das |    Posted: December 18, 2018 8:12 pm|    Updated: December 18, 2018 10:53 pm

Kamal Nath upsets Akhilesh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রীর কুরসিতে বসেছেন মাত্র ২৪ ঘণ্টা হয়েছে৷ এরই মধ্যে বিতর্কে জড়ালেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ৷ তিনি জানালেন, রাজ্যের যুবকরা কাজ পাচ্ছেন না এর অন্যতম কারণ হল, বিহার ও উত্তরপ্রদেশ থেকে বাইরের লোকরা এসে মধ্যপ্রদেশে ভিড় জমাচ্ছেন এবং তাঁরাই রাজ্যের যুবকদের কাজে ভাগ বসাচ্ছেন৷ শীর্ষ কংগ্রেস নেতার এই মন্তব্যকে ঘিরে ইতিমধ্যে রাজনৈতিক মহলে দানা বেঁধেছে বিতর্ক৷ কমল নাথের মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন কংগ্রেসের সম্ভাব্য জোটসঙ্গী সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব ও আপ সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷ সমালোচনায় সরব হয়েছে বিজেপিও৷ কমলনাথের এই বক্তব্য জোট রাজনীতিতে বিরোধ সৃষ্টি করতে পারে আশঙ্কা রাজনৈতিক মহলে৷

[গণবিবাহে ‘স্বচ্ছ ভারত’ অভিযানের প্রচার, অভিনব উপহার দম্পতিদের]

মঙ্গলবার কমল নাথ জানান, রাজ্যের শিল্পসংস্থা ও কারখানাগুলিতে যাতে বেশি সংখ্যায় মধ্যপ্রদেশের যুবরা কাজ পান সেই ব্যবস্থা করবে সরকার৷ প্রতিটি সংস্থায় যাতে ৭০ শতাংশ মধ্যপ্রদেশের মানুষ কাজ করতে পারেন সেই চেষ্টা করা হবে৷ এরপরই তিনি বলেন, “এরাজ্যে অনেক শিল্প গড়ে উঠেছে৷ কিন্তু সেখানে কাজ করছে উত্তরপ্রদেশ ও বিহার থেকে আসা বাইরের মানুষরা৷ আমি তাঁদের দোষ দিচ্ছি না৷ তবে এর ফলে কাজ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছেন মধ্যপ্রদেশের যুবরা৷” মধ্যপ্রদেশের এই মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন অখিলেশ যাদব৷ সপা প্রধান জানান, মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী সঠিক কথা বলছেন না৷ কমল নাথের সমালোচনা করেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়ালও৷

[‘কৃষিঋণ মকুব না করলে প্রধানমন্ত্রীকে ঘুমাতে দেব না’, হুঁশিয়ারি রাহুলের]

সুযোগ পেয়ে কংগ্রেসকে আক্রমণ করতে ছাড়েনি বিজেপিও৷ কমল নাথ ও কংগ্রেসের একযোগে সমালোচনা করেছেন বিজেপি নেতা গিরিরাজ কিশোর৷ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকে লজ্জাজনক বলে কটাক্ষ করেছেন তিনি৷ পাশাপাশি তিনি দাবি করেছেন, কমল নাথের এই মন্তব্যের জন্য উত্তরপ্রদেশ ও বিহারের মানুষের কাছে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর ক্ষমা চাওয়া উচিত৷ সোমবার মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন কমল নাথ৷ দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েই কথা রেখেছেন তিনি৷ রাজ্যের কৃষকদের দু’লক্ষ টাকা পর্যন্ত কৃষিঋণ মকুব করেছে তাঁর সরকার৷ তবে কমল নাথের এই মন্তব্যেকে হাতিয়ার করে যেভাবে খেপে উঠেছে কংগ্রেসের সম্ভাব্য জোটসঙ্গীরা, তাতে সিঁদুরে মেঘ দেখছে রাজনৈতিক মহল৷ তাঁদের যুক্তি, এভাবে চললে সত্যি হওয়ার আগেই শেষ হয়ে যেতে পারে কংগ্রেসের জোট সরকার গড়ার স্বপ্ন৷ তা কেবল আকাশকুসুম কল্পনা হয়েই থেকে যেতে পারে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে