BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  শনিবার ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

নামতা বলতে না পারার শাস্তি! খুদে পড়ুয়ার হাতে ড্রিলিং মেশিন চালাল শিক্ষিকা

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 27, 2022 9:19 am|    Updated: November 27, 2022 9:31 am

Kanpur Teacher Drills primary Student's Hand For Not Reciting Number Table | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কানপুরে (Kanpur) শিক্ষিকার ভয়াবহ অত্যাচারের শিকার পড়ুয়া। দুইয়ের নামতা বলতে না পারায় খুদে পড়ুয়ার হাত ফুটো করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, অভিয়ুক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে এখনও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তবে তদন্ত শুরু হয়েছে।

জানা গিয়েছে, মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) কানপুরে। অভিযোগ, উচ্চ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পড়ুয়াকে পড়া ধরেছিলেন শিক্ষিকা। দুইয়ের ঘরের নামতা জিজ্ঞেস করা হয়েছিল। কিন্তু তা বলতে পারেনি পড়ুয়া। এরপরই ড্রিলিং মেশিন দিয়ে পড়ুয়ার হাত ফুটো করে দেয় শিক্ষিকা। সঙ্গে সঙ্গে পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক পড়ুয়া ড্রিলিং মেশিনের প্লাগ খুলে দেয়।

[আরও পড়ুন: গুজরাটে আধা সামরিক বাহিনীর ক্যাম্পে এলোপাথাড়ি গুলি, নিহত ২ জওয়ান]

স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জানতে পারার পরই পড়ুয়াকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে খুদে পড়ুয়ার কাছে পুরো ঘটনা শুনে স্কুলে ছুটে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা। স্কুল চত্বরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে তারা। খুদের দাবি, “শিক্ষিকা আমাকে দুইয়ের ঘরের নামতা জিজ্ঞেস করেছিল। আমি বলতে পারিনি। এরপরই আমার বাম হাতে ড্রিলিং মেশিন চালিয়ে দেয়। যদিও পাশে দাঁড়িয়ে থাকা আরেক পড়ুয়া ড্রিল মেশিনের প্লাগ খুলে দেয়।”

অভিযোগ, এই ঘটনার বিষয়ে স্কুল পরিদর্শককে জানাননি টিচার ইনচার্জ। পরে খুদে পড়ুয়ার পরিবারের সদস্যরা স্থানীয় শিক্ষা আধিকারিককে পুরো বিষয়টা জানান। খবর পেয়ে স্কুলে ছুটে আসেন স্থানীয় শিক্ষা আধিকারিক ও ব্লক শিক্ষা আধিকারিক। এ প্রসঙ্গে স্থানীয় শিক্ষা আধিকারিক সুজিতকুমার সিং জানান, “গোটা বিষয়টির তদন্তের জন্য একটি কমিটি তৈরি করা হয়েছে। প্রেম নগর ও শাস্ত্রী নগরের শিক্ষা আধিকারিক ঘটনার তদন্ত করে রিপোর্ট পাঠাবেন। অভিযুক্তর দোষ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

[আরও পড়ুন: রাতের কলকাতায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, দাউদাউ করে জ্বলছে টেরিটি বাজারের শতাব্দীপ্রাচীন বাড়ির একাংশ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে