BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শ্রীলঙ্কার পর এবার জঙ্গিদের টার্গেটে ভারতের একাধিক রাজ্য

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 27, 2019 4:45 pm|    Updated: April 27, 2019 4:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শ্রীলঙ্কায় যে ধরনের নাশকতা ঘটানো হয়েছে, ভারতে তারচেয়েও বড় রকমের জঙ্গি হামলার ছক কষছে জঙ্গি সংগঠন আইএস৷ তাদের টার্গেটে  রয়েছে ভারতের সাত রাজ্য ও একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল৷ শনিবার এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন কর্ণাটকের ডিজি-আইজিপি নীলমণি এন রাজু৷ এই মর্মে ওই সাত রাজ্যকে চিঠিও লিখেছেন তিনি৷ দিয়েছেন চূড়ান্ত সতর্কবার্তা৷

[ আরও পড়ুন: অন্ধকারের সঙ্গে লড়তে হচ্ছে, আফশোস মোদির চপারে তল্লাশি চালানো আধিকারিকের ]

জানা গিয়েছে, একটি ফোনের সূত্র ধরেই এই তথ্য পেয়েছেন কর্ণাটক পুলিশের এই শীর্ষ আধিকারিক৷ তিনি জানতে পেরেছেন, জঙ্গি টার্গেটে রয়েছে তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, কেরল, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, গোয়া, মহারাষ্ট্রের মতো সাতটি রাজ্য৷ এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরি৷ তিনি এও জানান, হামলা হতে পারে ট্রেন বা ওই রাজ্যগুলির  কোনও ব্যস্ততম স্টেশনে৷ শ্রীলঙ্কায় যেমন আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে৷ এক্ষেত্রেও তেমনটাই হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন গোয়েন্দারা৷

[ আরও পড়ুন: প্রিয়াঙ্কাকে ভোটে লড়তে দিল না কংগ্রেস, কটাক্ষ জেটলির ]

অন্যদিকে ভুয়ো ফোনের মাধ্যমে জঙ্গি অনুপ্রবেশের খবর রটানোর অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে কর্ণাটক পুলিশ৷ ধৃত ব্যক্তির নাম স্বামী সুন্দরমূর্তি৷ জানা গিয়েছে, পুলিশকে ফোন করে ওই ব্যক্তি জানান, শহরে প্রবেশ করেছে ১৯ জন জঙ্গি৷ বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন করে রয়েছে তারা৷ শ্রীলঙ্কার মতোই নাশকতার ছক রয়েছে তাদের৷ কর্ণাটক প্রশাসনের তরফে জানানে হয়েছে, ওই ফোন পাওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে কোলার ও বেঙ্গালুরুর পুলিশ৷ সঙ্গে সঙ্গে ওই খবর পৌঁছে দেওয়া হয় স্পেশ্যাল স্কোয়াডের কাছে৷ ফোন কলের সূত্র ধরেই স্বামী সুন্দরমূর্তিকে আভাতোহাল্লি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ৷ পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার পর ধৃত ব্যক্তি জানান, অনুমানের ভিত্তিতেই ওই ফোন করেছিলেন তিনি৷ তাঁর  মনে হয়েছে, শহরে জঙ্গিদের অনুপ্রবেশ ঘটেছে৷ এবং বিষয়টি পুলিশকে জানানো প্রয়োজন৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement