BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

কেরলে সিপিএম পার্টি অফিসের ভিতরে সমর্থকের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 21, 2019 5:25 pm|    Updated: March 21, 2019 5:25 pm

Woman raped inside a local office of the ruling CPI(M) in Palakkad district.

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সিপিএম পার্টি অফিসের মধ্যে এক দলীয় সমর্থকের ২১ বছরের যুবতী মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল শাসকদলের এক ছাত্রনেতার বিরুদ্ধে। এই ঘটনার জেরে গর্ভবতী হয়ে পড়েন যুবতীটি। আর প্রসবের পরে নিজের সন্তানকে রাস্তায় ফেলে চলে যান। পরে পুলিশ তদন্তে নেমে মেয়েটিকে জেরা করলে ওই ছাত্রনেতার ধর্ষণের ফলে তিনি গর্ভবতী হয়েছেন বলে পুলিশকে জানান। ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের পালাক্কাড় জেলায়।

ওই যুবতীর অভিযোগ, গত বছর জুন মাসে পালাক্কাড় জেলার একটি প্রত্যন্ত গ্রামের সিপিএম পার্টি অফিসে কলেজ ম্যাগাজিনের প্রস্তুতির জন্য গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে তাঁকে জোর করে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত ছাত্রনেতা। এর ফলেই তিনি গর্ভবতী হয়ে পড়েন। কয়েকদিন আগে সন্তান প্রসব করার পর লোকলজ্জার ভয়ে তিনি সন্তানটিকে রাস্তার ধারে ফেলে আসেন। প্রসবের আগে পর্যন্ত যে গর্ভবতী হয়ে পড়েছেন তা তিনি বা তাঁর পরিবারের কেউ বুঝতে পারেননি।

[ফের সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন পাকিস্তানের, শহিদ ভারতীয় জওয়ান]

মেয়েটি এই অভিযোগ করলেও এর সঙ্গে সিপিএম বা তাদের পার্টি অফিসের কোনও যোগ নেই বলে দাবি স্থানীয় পুলিশের। এপ্রসঙ্গে পালাক্কাড়ের পুলিশ প্রধান সাবু পি এস বলেন, তদন্তে নেমে জানা গিয়েছে ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে যুবতীটির পরিচয় হয়েছিল অভিযুক্তের। এবং তিনি নিজের ভাড়াবাড়িতেই ধর্ষিতা হয়েছিলেন। এর সঙ্গে সিপিএম পার্টির কোনও যোগ নেই। শুধুমাত্র অভিযুক্ত একটি গ্যারাজ চালায় যেটা স্থানীয় সিপিএম পার্টি অফিসের কাছে অবস্থিত। কিন্তু, তার সঙ্গে সিপিএম দলের কোনও যোগ নেই। বরং মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে সিপিএমের যোগাযোগ আছে। বর্তমানে ধর্ষিতার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্তের নামে ধর্ষণের মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু হয়েছে।

[তুমুল দাম্পত্য কলহ, মদ্যপ স্বামীর পুরুষাঙ্গ কাটল স্ত্রী]

পার্টি অফিসে ধর্ষণের প্রসঙ্গে স্থানীয় এক সিপিএম নেতা জানান, দলীয় অফিসের মধ্যে সত্যি এই ঘটনা ঘটেছে কি না তা দলের পক্ষ থেকে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। পুলিশের পক্ষ থেকেও তদন্ত করা হচ্ছে। পালাক্কাড়ের বিদায়ী সাংসদ তথা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের এলডিএফ প্রার্থী এম বি রাজেশও দাবি করেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সত্যিটাকে সামনে আনা হোক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে