Advertisement
Advertisement
Farmer Protest

‘লুকিয়ে রাখা অস্ত্র নিয়ে পুলিশের উপর হামলা করুন’, কৃষকদের বিক্ষোভে উসকানি পান্নুনের

২১ ফেব্রুয়ারি বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী কালো পতাকা বিক্ষোভের ডাক দিয়েছেন প্রতিবাদী কৃষকরা।

Khalistani leader Pannun allegedly asked farmer's to attack police during protest | Sangbad Pratidin

নিজস্ব চিত্র।

Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:February 19, 2024 12:30 pm
  • Updated:February 19, 2024 12:30 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৃষকদের প্রতিবাদে খলিস্তানি (Khalistan) যোগ! কৃষকনেতাদের হিংসা ছড়াতে উসকানি দিচ্ছেন জঙ্গি নেতা গুরুপতবন্ত সিংহ পান্নুন! এমনই অভিযোগ উঠল একটি ভিডিও ঘিরে। ইতিমধ্যেই এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, সম্মিলিত কিষান মোর্চা (এসকেএম) ২১ ফেব্রুয়ারি বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী কালো পতাকা বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে। পাঞ্জাব এসকেএম ২০-২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বিজেপি সাংসদ, বিধায়ক, মন্ত্রী, জেলা সভাপতিদের বিরুদ্ধে তিনদিনের বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে। পাশাপাশি, এসকেএম বলেছে যে তারা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে এবং কৃষকদের বিক্ষোভের (Farmer Protest) বিষয়ে ভবিষ্যত পরিকল্পনা নির্ধারণের জন্য ২২ ফেব্রুয়ারি একটি বৈঠক করবে।

Advertisement

রবিবারই চণ্ডীগড়ে আন্দোলনকারী কৃষকদের সঙ্গে কেন্দ্রের চতুর্থ দফার বৈঠক ছিল।তবে তার আগেই বিজেপির বিরুদ্ধে সরাসরি বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করে এসকেএম। সেই সঙ্গে কৃষিপণ্যের ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (এমএসপি) আইনি ভাবে নিশ্চিত করতে কেন্দ্রকে অর্ডিন্যান্স আনতে হবে বলে দাবি তুলেছে কৃষক সংগঠনগুলি। প্রসঙ্গত, এর আগে ৮, ১২ এবং ১৫ তারিখ তিন দফায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা কৃষকদের সঙ্গে বৈঠকে বসলেও এমএসপি আইন-সহ অন্যান্য দাবিতে সমাধানসূত্র মেলেনি। তবে এদিনের বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ষষ্ঠবার ইডি তলবে ‘না’ কেজরির, ‘বেআইনি সমনে কোর্টের রায়ের অপেক্ষা করুন’, তোপ আপের]

এমএসপি এবং অন্যান্য দাবির নিয়ে একাধিক কৃষক সংগঠন প্রতিবাদে সামিল হয়েছে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ‘দিল্লি চলো’র ডাক দিয়ে রাস্তায় নেমে আন্দোলনে সামিল কৃষকদের বিক্ষোভ ষষ্ঠ দিনেও অব্যাহত রয়েছে। পাঞ্জাব-হরিয়ানা সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকদের থামাতে মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল সংখ্যক পুলিশ।

তার মধ্যেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারীদের ‘উস্কানি’ দেওয়ার চেষ্টা নিষিদ্ধ খলিস্তানপন্থী সংগঠন শিখস ফর জাস্টিস (এসএফজে)-এর নেতা গুরুপতবন্ত সিংহ পান্নুনের (Gurpatwant Singh Pannun)। পঞ্জাব-হরিয়ানা পুলিশের উপর হামলা করার জন্য অস্ত্র সরবরাহের প্রস্তাব দিয়ে একটি ভিডিয়োবার্তা প্রকাশ করেছেন তিনি। এই ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই নিরাপত্তা বাড়িয়েছে পুলিশ। শুরু হয়েছে তদন্ত। ভিডিয়োবার্তায় পান্নুন আন্দোলনকারী কৃষকদের উদ্দেশে বলেন, “কর্তারপুর সীমান্তে অস্ত্র রাখা আছে। সেই অস্ত্র নিয়ে পুলিশের উপর হামলা করুন। আপনাদের দাবি পূরণের জন্য সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করুন।” তবে সংবাদ প্রতিদিন ভিডিওর সত‌্যতা যাচাই করেনি।

[আরও পড়ুন: সন্দেশখালি কাণ্ড: সুপ্রিম কোর্টে স্বস্তি রাজ্যের, সংসদীয় কমিটির নোটিসে স্থগিতাদেশ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ