৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

চুমুতে বিপত্তি, গোখরোর ছোবলে প্রাণ গেল সাপুড়ের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 6, 2017 9:29 am|    Updated: February 6, 2017 10:38 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ১০০টির-ও বেশি জ্যান্ত সাপ ধরেছেন। পেশায় সাপুড়ে। কিন্তু সাপের মাথায় চুমু খাওয়ার ছবি তুলতে গিয়েই ঘটল বিপত্তি। গোখরোর কামড়ে মৃত্যু হল নবি মুম্বইয়ের বেলাপুরের বাসিন্দা সোমনাথ মাত্রের।ঘটনাটি ঘটেছে গত ২ ফেব্রুয়ারি। এই নিয়ে গত ১২ বছরে সাপের কামড়ে ৩১ জন সাপুড়ের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল।

বাড়ির ভিতরেই ধর্ষণ করে খুন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীকে

ওই এলাকারই এক সাপুড়ে জানায়, ‘আমরা সোমনাথের এক বন্ধুর কাছ থেকে জানতে পেরেছি, ওই দিন সে একটি গাড়ি থেকে সাপ উদ্ধারের জন্য সিবিডি বেলাপুর গিয়েছিল। কিন্তু গোখরোকে উদ্ধারের পর সে হঠাৎ করে সাপটির মাথার পিছনে চুমু খাওয়ার ছবি তুলতে যায়। তখনই গোখরোটি ঘুরে সোমনাথের বুকে ছোবল মারে।’ আরেক সাপুড়ের কথায়, ‘সোমনাথকে নবি মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে পাঁচদিন ভর্তি রাখা হয়েছিল। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। এর আগে ১০০টিরও বেশি বিষাক্ত সাপ ধরার অভিজ্ঞতা ছিল সোমনাথের।’ আগামীদিনে এই ধরনের ঘটনা যাতে আর না ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য বনদপ্তরের কাছে আর্জি জানিয়েছে অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। পাশাপাশি তাদের দাবি, যারা ফের এই ধরনের কাজ করার চেষ্টা করবে তাদের বিরুদ্ধে যেন উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয় বনদপ্তর।

পাঠ্যবই থেকে এবার বাদ পড়লেন রবীন্দ্রনাথ, শরৎচন্দ্র!

সরীসৃপ-সংক্রান্ত বিশারদ এবং ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার কেদার ভিদের কথায়, ‘এখনকার দিনে সাপেদের সংরক্ষণের জন্য আমাদের সাপধরা, তাদের নিয়ে খেলা দেখানো বা এই ছবি তোলার মতো কাজ বন্ধ করতে হবে। তাহলেই সমাজে সাপের কামড়ে মৃত্যুর মতো ঘটনাও কম ঘটবে।’ এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্য গণেশ মেহেনদালে বলেন, ‘এই ধরনের কার্যকলাপ রুখতে এখনই বনদপ্তরের এগিয়ে আসা উচিত। যে কোনও ধরনের সাপ নিয়ে খেলা দেখানোটাই বেআইনি। অনেক সময় দেখা যায়, সাপ ধরতে গিয়েই মারা যান সাপুড়েরা। এরকম পরিস্থিতির সঙ্গে মোকাবিলা করার জন্য কিছু নিয়মকানুন আনা প্রয়োজন। ‘

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে