BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হজ অফিসের পর এবার পার্কের পাঁচিলে গেরুয়া রং, ফের বিতর্কে যোগী প্রশাসন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 21, 2018 9:27 am|    Updated: January 21, 2018 9:27 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কহজ অফিসের পর গেরুয়া রঙে রাঙল শহরের সমস্ত পার্কের দেওয়াল ও ডিভাইডার। ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের লখনউ শহরের।

গত ডিসেম্বরেই লখনউ শহরের হজ অফিসের পাঁচিলে পড়েছিল গেরুয়া রঙের পোঁচ। বিষয়টি নিয়ে হইচইও কম হয়নি। মুসলিম সমাজ ও বিরোধীদের তরফ থেকে বিতর্কের ঝড় উঠতেই প্রমাদ গোনে যোগী আদিত্যনাথ সরকারের প্রশাসন। সাত তাড়াতাড়ি ঘিয়ে রঙে বদলে দেওয়া হয় ওই হজ অফিসের পাঁচিল। এরপরে বেশ কিছুদিন গৈরিকীকরণ বন্ধ রেখেছিল লখনউ প্রশাসন। তবে নতুন বছর শুরু হতে না হতেই ফের আগের ভূমিকায় ফিরে গিয়েছে কর্মীরা। ঘটনার সূত্রপাত শহরের গোমতীনগর পুরসভা এলাকায়। শনিবার বিকেলেই ওই পুরসভা এলাকার প্রায় সব কটি পার্কের পাঁচিল গেরুয়া রঙে রেঙেছে। গেরুয়ার পোঁচ পড়েছে ডিভাইডারগুলিতেও।

[বিয়ের পরেও মহিলাদের জাতিগত পরিচয় বদলায় না, রায় সুপ্রিম কোর্টের]

উল্লেখ্য, যোগী আদিত্যনাথ সরকারের গেরুয়াপ্রীতির খবর প্রায় সকলেরই জানা। উত্তরপ্রদেশে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকেই তাই গোটা রাজ্য জুড়েই গেরুয়া রঙের ছোঁয়া। মুখ্যমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে শুরু করে অফিসের দেওয়াল, কার্পেট, পর্দা, কলম সবই রং বদলে গেরুয়া হয়েছে অনেকদিন হল। বাদ যায়নি মুখ্যমন্ত্রীর ব্যবহৃত তোয়ালেও। তবে গেরুয়া রঙের তোয়ালে না মেলায় গেরুয়ার কাছাকাছি রঙেই তোয়ালের বরাত দেওয়া হয়েছিল। এরপর থেকে রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি অফিস, ভবনগুলি একে একে গেরুয়া রঙে বদলে যেতে থাকে। সেই পরিবর্তনের হাত ধরেই গতমাসে লখনউয়ের হজ অফিসের পাঁচিলেও গেরুয়া রং করে দেয় কর্মীরা। বিষয়টি নজরে আসতেই বিরোধিতায় সরব হয় মুসলিম সমাজ। রাজ্যের প্রধান বিরোধীদল সমাজবাদী পার্টির তরফেও যোগী প্রশাসনকে লক্ষ্য করে নিন্দার ঝড় ওঠে। বিতর্ক এড়াতে তড়িঘড়ি সংশ্লিষ্ট পাঁচিলটিকে ঘিয়ে রঙে রাঙিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা নেয় প্রশাসন। তবে তাতেই বিতর্কের আঁচ চাপা পড়ে যায়নি। রাজ্য জুড়ে গৈরিকীকরণের নীতি নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনওরকম সর্বমত আলোচনার প্রয়োজন মনে করেনি শাসক বিজেপি। এমন অভিযোগ রয়েছে বিরোধীদের। এবার পার্কের পাঁচিলে গেরুয়া রং দেখে বিরোধীরা কি প্রতিক্রিয়া দেয় সেটাই দেখার।

[রক্তাক্ত বন্ধুকে বাঁচাতে সাহায্যের আবেদন কিশোরের, দাঁড়িয়ে দেখল পুলিশ!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement