২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কুম্ভমেলায় তাঁবুতেই মিলবে পাঁচতারা হোটেলের সুবিধা, কীভাবে জানেন?

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 21, 2018 6:58 pm|    Updated: December 21, 2018 6:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার আরামে ডুব দিয়ে মিলবে কুম্ভস্নানের পুণ্য! কুম্ভমেলায় গঙ্গায় স্লান করলেই শরীর ছেড়ে পালায় পাপ। আর পুণ্যিতে নাকি ভরে যায় দেহ-মন। পাপের বোঝা হালকা করতে পুণ্যাকাঙ্ক্ষীদের ভীষণ ইচ্ছা হয় কুম্ভমেলায় শামিল হতে। কিন্তু সেখানে থাকা-খাওয়ার চরম কষ্টের কথা স্মরণ করেই বেশিরভাগ পুণ্য অর্জনের স্বপ্ন ছাড়েন।

[দিঘা-মন্দারমণি ভুলুন, রাজ্যের অফবিট এই সমুদ্র সৈকতে যাবেন নাকি?]

উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজ তথা এলাহাবাদে ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত কুম্ভমেলায় সেই স্বপ্নই সফল করতে পারবেন বিলাসপ্রেমী পুণ্যকাঙ্ক্ষীরা। এঁদের কথা ভেবেই প্রয়াগরাজে বিলাসবহুল তাঁবুর শহর গড়ে তুলেছে যোগী আদিত্যনাথের সরকার। সেখানে মিলবে পাঁচতারা হোটেলের মতো সব আধুনিক সুবিধা। তবে যাত্রা শুরুর আগে পুণ্যার্থীদের কুম্ভমেলা সংক্রান্ত সরকারি ওয়েবসাইট থেকে পছন্দের তাঁবু বুক করতে হবে। বিশ্বমানের ‘টেন্ট সিটি’কে চারটি ভাগে ভাগ করা হয়েছে। সেগুলির নাম কল্প বৃকাশ, কুম্ভ ক্যানভাস, বৈদিক টেন্ট সিটি ও ইন্দ্রপ্রস্থম সিটি। চার হাজার এই বিলাসবহুল তাঁবু হোটেলের মধ্যে বেশ কয়েকটির স্যুটও আছে। প্রতিটি তাঁবুর ভিতরে রট আয়রনের খাট, আরামদায়ক বিছানা, প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র ও আধুনিক শৌচালয়ের ব্যবস্থা আছে। বৈদিক তাঁবুতে সরস্বতী, গঙ্গা ও যমুনা নামে তিনটি প্রিমিয়াম ক্লাসের তাঁবু আছে। এর মধ্যে সরস্বতী টেন্টের ভাড়া ১৪,৯৯৯ টাকা, গঙ্গার ২৩,৯৯৯ টাকা ও যমুনার সুইস টেন্টের ভাড়া ১৮,৯৯৯ টাকা। অন্যদিকে ইন্দ্রপ্রস্থম সিটিতে ডিলাক্স, লাক্সারি ও স্যুট তাঁবুর ব্যবস্থা আছে।

TENT

[বাংলাদেশিদের জন্য সুখবর, আরও সহজ হচ্ছে সিকিম পর্যটন]

আগামী বছর প্রয়াগরাজে কুম্ভমেলা শুরু হচ্ছে ১৪ জানুয়ারি। চলবে ৪ মার্চ পর্যন্ত। এর মধ্যে বিশেষ পুণ্যস্নানের জন্য ছ’টি গুরুত্বপূর্ণ দিন রয়েছে। মকরসংক্রান্তি ১৫ জানুয়ারি, পৌষ পূর্ণিমা ২১ জানুয়ারি, মৌনি অমাবস্যা ৪ ফেব্রুয়ারি, বসন্ত পঞ্চমী ১০ ফেব্রুয়ারি, মাঘি পূর্ণিমা ১৯ ফেব্রুয়ারি ও মহাশিবরাত্রি ৪ মার্চ। প্রতিবারই কুম্ভমেলায় দেশ বিদেশ থেকে সন্ন্যাসী ও পুণ্যার্থীরা আসেন। লক্ষ লক্ষ ভক্তের ভিড় ঠেলে চরম অব্যবস্থার মধ্যে হাড় কাঁপানো ঠান্ডায় গঙ্গাস্নানের কথা ভাবলেই অনেকে কুঁকড়ে যান। একটু খরচ করে আরামে পুণ্যলাভ করতে চাইলে আগাম তাঁবু বুকিং করে রাখার পরামর্শ দিলেন কল্প বৃকাশ কর্তৃপক্ষ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement