১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

গো-ভক্তির নামে মানুষ খুন চলবে না, কড়া হুঁশিয়ারি মোদির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 29, 2017 9:22 am|    Updated: June 29, 2017 9:22 am

Lynching in the name of ‘Gau Bhakti’ not acceptable: PM Modi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গণপিটুনিতে মৃত্যুর ঘটনা বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার সবরমতী আশ্রম থেকে এ বিষয়ে কড়া বার্তা দিলেন তিনি। সাফ জানিয়ে দিলেন, গো-ভক্তির নামে মানুষ খুন করাকে কোনওভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।

গো-রক্ষার নামে সংঘর্ষে মৃত ২৮ জনের মধ্যে ২৪ জনই মুসলিম ]

এর আগেও স্বঘোষিত গো-রক্ষকদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে গো-রক্ষার নামে বা গো-মাংস বহন করার অভিযোগে মানুষ খুনের অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি জুনেইদ খান নামে এক কিশোর এর শিকার হয়। তার মৃত্যুর পরই দেশ জুড়ে এ নিয়ে আন্দোলন শুরু হয়। দেশের ১১টি শহরে আলাদাভাবে মানুষ সমবেত হয়ে গণপ্রহারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায়। গণপিটুনি নিয়ন্ত্রণে এখনও কোনও পৃথক আইন নেই দেশে। তাই গণপ্রহারকে সামনে রেখেই গো-রক্ষকদের তাণ্ডব চালানোর ঘটনা বাড়ছে বলে অভিযোগ। কিন্তু এই দায় সকলের ঘাড়ে চাপানো যাবে না, এই ছিল আন্দোলনকারীদের বক্তব্য। এদিন এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বেগও গোপন থাকল না। স্বঘোষিত গো-রক্ষকদের কার্যত তুলোধোনা করে ক্রুদ্ধ মোদি জানান, গো-ভক্তির নামে মানুষকে মারা কখনওই বরদাস্ত করা হবে না। এটা এমন একটা জিনিস যা মহাত্মা গান্ধীও মেনে নিতে পারতেন না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনও মানুষেরই আইন নিজের হাতে তুলে নেওয়ার অধিকার নেই। হিংসা কখনও সমাধানের পথ হতে পারে না। দেশকে অহিংসার ভূমি বলে উল্লেখ করে, প্রধানমন্ত্রী গণপ্রহারের তীব্র নিন্দা করেন।

সবরমতী আশ্রমের শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে এদিন উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকেই এই তাণ্ডবের বিরুদ্ধে হুঁশিয়ারি দিলেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে স্বঘোষিত গো-রক্ষকদের তাণ্ডব যত বেড়েছে, তত বিরোধীদের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে প্রধানমন্ত্রীকে। এদিন গণপ্রহারের ঘটনার কঠোর সমালোচনা করে সে সবেরও জবাব দিলেন মোদি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে