BREAKING NEWS

২২  মাঘ  ১৪২৯  সোমবার ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

প্রকৃতি মায়েরও বাঁচার অধিকার আছে, সবুজ সংরক্ষণের প্রশ্নে মন্তব্য মাদ্রাজ হাই কোর্টের

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: May 2, 2022 1:23 pm|    Updated: May 2, 2022 2:38 pm

Madras High Court says Mother Nature' is a living being | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মা প্রকৃতিরও (Mother Nature) ব্যক্তিসত্তা রয়েছে। সেই সত্তার নিরিখে বেঁচে থাকার যাবতীয় অধিকারও রয়েছে তার। একজন জীবিতর মতোই সে তার দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করে চলেছে। ফলে তাকে রক্ষা করার (Parens Patriae Jurisdiction) দায়িত্ব নিতে হবে আমাদের। প্রকৃতি সংরক্ষণের প্রশ্নে এমনই মন্তব্য করল মাদ্রাজ হাই কোর্ট (Madras High Court)।

সম্প্রতি তামিলনাড়ুর এক প্রাক্তন তহসিলদার স্তরের আধিকারিকের বিরুদ্ধে সরকারি জমির পাট্টা (জমির দলিল) বিলি করার অভিযোগ উঠেছিল। ওই আধিকারিকের বিরুদ্ধে বেআইনি কাজ ও শৃঙ্খলাভঙ্গের মামলা হয়। সেই মামলার শুনানিতেই সবুজ প্রকৃতিকে জীবিত ব্যক্তিসত্তা হিসেবে উল্লেখ করল মাদ্রাজ হাই কোর্টের মাদুরাই বেঞ্চ। এইসঙ্গে বনাঞ্চল সংরক্ষণের (Nature Conservation) বিষয়ে কড়া অবস্থান নিল বিচারপতিরা। কিছুদিন আগে একটি মামলায় উত্তরাখণ্ড হাই কোর্ট গঙ্গোত্রী যমুনত্রীর আইনি অধিকারের প্রশ্ন তুলে সংরক্ষণের কথা বলেছিল, এদিন সেই প্রসঙ্গও টানেন মাদ্রাজ হাই কোর্ট।

[আরও পড়ুন: ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ নিষেধ রাহুল গান্ধীর! কংগ্রেসের তোপে তেলেঙ্গানা সরকার]

এদিন বিচারপতি এস শ্রীমাথি (S Srimathy) বলেন, আমাদের পূর্ব প্রজন্ম পৃথিবী মার অতীত গৌরব বজায় রেখে আমাদের হাতে তুলে দিয়েছিলেন। আমাদেরও নৈতিক দায়িত্ব সেই গৌরব পরবর্তী প্রজন্মের হাতে তুলে দেওয়া। এইসূত্রেই সবুজ প্রকৃতি জীবিত ব্যক্তিসত্ত্বা বলে মন্তব্য করেন বিচারপতিরা।

বিচারপতি এস শ্রীমাথি বলেন, “সময় হয়েছে মা প্রকৃতির বেঁচে থাকা, নিরাপত্তা, ভরণপোষণ এবং পুনরুত্থানের প্রসঙ্গে আইনগত অধিকার তথা সাংবিধানিক অধিকারের প্রশ্ন তোলার। ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকারকে মা প্রকৃতিকে রক্ষার বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছে। সমস্ত সম্ভাব্য উপায়ে তাকে রক্ষা করার জন্য পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে।”

[আরও পড়ুন: ‘কাউকে টিকা নিতে বাধ্য করা যাবে না’, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট]

প্রসঙ্গত, মাদ্রাজ হাই কোর্ট সবুজ সংরক্ষণে কেন্দ্রের ইতিবাচক পদক্ষেপের কথা বললেও উলটো চিত্র ধরা পড়েছে সম্প্রতি। ফের বিশ্বের দূষিততম শহরের তকমা পেয়েছে দিল্লি (Delhi)। তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশের ঢাকা, চাদের এনজামেনা, তাজিকিস্তানের দুশানবে, ওমানের মাস্কাটের মতো শহরগুলিও। কিন্তু সকলকে দূষণের (Pollution) নিরিখে টেক্কা দিয়েছে দেশের রাজধানী শহর। শুধু তাই নয়। এমনকী কেবল দিল্লি নয়, ১০৭টি শহরের এই তালিকা থেকে জানা যাচ্ছে মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে দূষিত ১৫টি শহরের মধ্যে ১১টি শহরই ভারতের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে