BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বড় জয় বিজেপি বিরোধীদের, সুপ্রিম নির্দেশে বুধবারই মহারাষ্ট্রে আস্থা ভোট

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 26, 2019 10:59 am|    Updated: November 26, 2019 1:07 pm

Maharashtra: Supreme Court says floor test tomorrow by 5 pm

দীপাঞ্জন মণ্ডল, নয়াদিল্লি: বুধবার মহারাষ্ট্রে আস্থা ভোট করার নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চ। শিব সেনা, কংগ্রেস ও এনসিপির দায়ের করা মামলার প্রেক্ষিতে সকাল সাড়ে দশটায় এই নির্দেশ দেয় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। বুধবার বিকেল পাঁচটার মধ্যেই সমস্ত বিধায়ককে শপথ নিতে হবে বলে নির্দেশ দেন বিচারপতিরা। তারপর পাঁচটায় আস্থা ভোট করানোর কথা বলেন। আস্থা ভোট গোপন ব্যালেটে করার পরিবর্তে খোলা ব্যালেটে করার নির্দেশ দেন। তবে প্রথমেই একজন প্রোটেম স্পিকার নিয়োগ করতে বলেছে আদালত। পুরো নির্বাচন প্রক্রিয়ার সরাসরি সম্প্রচারেরও নির্দেশ দিয়েছে। তবে এই বিষয়ে সংবিধান লঙ্ঘনের যে অভিযোগ করেছে বিজেপি বিরোধীরা। তার বিস্তারিত শুনানি ছ’সপ্তাহ পরে করা হবে বলে জানিয়েছেন বিচারপতিরা।

[আরও পড়ুন: কোনও চাকরিই স্থায়ী নয়, শীতকালীন অধিবেশনেই বিল আনছে কেন্দ্র]

গত শনিবার ভোরে আচমকা রাষ্ট্রপতি শাসন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয় মহারাষ্ট্র থেকে। এরপর সকালেই মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন বিজেপি নেতা দেবেন্দ্র ফড়ণবিস। উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন এনসিপির অজিত পওয়ার। এরপর বিকেলেই এই সরকার গঠনকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় শিব সেনা, কংগ্রেস ও এনসিপি। দ্রুত আস্থা ভোট করার আরজি জানায়।

 

তাদের আবেদনে সাড়া দেয় তিন বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। সোমবারের সকালের মধ্যে রাজ্যপালের নির্দেশনামা ও সরকারের গঠনের আবেদন জানিয়ে জমা দেওয়া দেবেন্দ্র ফড়ণবিসের চিঠি আদালতে জমা করতে বলে। সোমবার তা জমা পড়ার পর ৮০ মিনিট ধরে শুনানি হয়। এরপর মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ রায় ঘোষণা করবে বলে জানায় সুপ্রিম কোর্ট।

[আরও পড়ুন: ট্রেনে সফরকালে বাড়িতে চুরি হলে মিলবে ক্ষতিপূরণ, জানিয়ে দিল আইআরসিটিসি]

 

সেই মতো আজ আদালত খুলতেই সু্প্রিম কোর্টের বিচারপতি এনভি রামান্না জানান, বিরোধীদের দাবিকে মান্যতা দিয়েই সংবিধানের নৈতিকতা প্রচার করতে হবে। এরজন্য মহারাষ্ট্রে আগামিকালই আস্থা ভোট হবে। প্রথমে তাড়াতাড়ি একজন প্রোটেম স্পিকার নিয়োগ করতে হবে। বিধায়কদের শপথগ্রহণ করানোর পর তিনিই আস্থা ভোট পরিচালনা করবেন। আর এই ভোট গোপন ব্যালেটে নয় করতে হবে প্রকাশ্যেই। বিধানসভা থেকে এর সরাসরি লাইভ টেলিকাস্টের ব্যবস্থা করতে হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে