BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিহারে সাংবাদিক হত্যায় আত্মসমর্পণ প্রধান অভিযুক্তর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 2, 2016 1:05 pm|    Updated: June 2, 2016 1:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিহারে হিন্দি দৈনিক হিন্দুস্তানের সাংবাদিক রাজদেও রঞ্জনের খুনের মামলায় আত্মসমর্পণ করল প্রধান অভিযুক্ত লড্ডন মিঞা৷ বৃহস্পতিবার সিওয়ানের প্রধান বিচারবিভাগীয় আদালতে আত্মসমর্পণ করে লড্ডন৷

আরজেডির প্রাক্তন বাহুবলী সাংসদ সাহবুদ্দিনের খাস অনুচরদের মধ্যে একজন হল এই লড্ডন মিঞা৷ রাজদেও রঞ্জনের খুনের পরই উঠে আসে এই লড্ডন মিঞার নাম৷ বিহার পুলিশ তাকে হন্যে হয়ে খুঁজছিল৷ এদিন নিজেই আদালতে গিয়ে আত্মসমর্পণ করে পুলিশের খাতায় নাম থাকা লড্ডন৷

গত ১৩ মে বিহারের সিওয়ানে রেল স্টেশনের বাইরে খুন করা হয় প্রসিদ্ধ হিন্দি দৈনিক হিন্দুস্তানের জেলা ব্যুরো চিফ রাজদেও রঞ্জনকে৷ খুব কাছ থেকে তাঁর মাথায় এবং ঘাড়ে গুলি করা হয়৷ ওই সাংবাদিককে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন৷ সারা বিহার জুড়ে ওঠে সমালোচনার ঝড়৷ সন্দেহ করা হয় এর পিছনে আছে বাহুবলী নেতা শাহবুদ্দিনের হাত৷ ওই নেতাকে তড়িঘড়ি সিওয়ান জেল থেকে ভাগলপুর জেলে স্থানান্তরীত করা হয়৷ খুনের মামলায় উঠে আসে একের পর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য৷ পুলিশি তদন্তে প্রকাশ পায়, আগে থেকে পরিকল্পনা করেই এই খুন করা হয়৷ রাজদেও রঞ্জনকে মারার জন্য খুনের দিন পনেরো আগে জেল থেকে ছাড়া পায় সাহবুদ্দিনের খাস লোক লড্ডন মিঞা৷ গত ২৫ মে এই খুনে জড়িত সন্দেহে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করে বিহার পুলিশ৷ জেরায় ধৃতরা দোষ স্বীকার করে৷ তারা জানায় ঘটনার আগে রীতিমতো জায়গার রেইকি করে তারা৷ ওই পাঁচ কন্ট্র্যাক্ট কিলারকে নিয়োগ করে লড্ডন মিঞা৷ রোহিত কুমার নামে এক ধৃতকে খুনের জন্য পনেরো হাজার টাকা ‘সুপারি’-ও দেয় লড্ডন৷ এই রোহিত কুমারের কাছ থেকেই পরে খুনে ব্যবহৃত একটি দেশি পিস্তল উদ্ধার করে পুলিশ৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement