২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়ামের প্ল্যান্টে বড়সড় বিস্ফোরণ। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ের প্ল্যান্টটি কেঁপে ওঠে। এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর নেই। নিরাপত্তার স্বার্থে ওই প্ল্যান্টের পাশের গ্রামগুলি থেকে লোকজনকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। বিস্ফোরণের জেরে লখনউ-কানপুর শাখায় ব্যাহত ট্রেন চলাচল।

[আরও পড়ুন: ২.১ কিমি নয়, চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ঢিলছোঁড়া দূরত্ব পর্যন্ত ইসরোর নিয়ন্ত্রণে ছিল বিক্রম!]

বৃহস্পতিবার সকালে উত্তরপ্রদেশের উন্নাওয়ে হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম প্ল্যান্টে কাজ চলছিল। আচমকাই সেই সময় বিস্ফোরণের শব্দ পান কর্মীরা। দৌড়ে ঘটনাস্থলে যান তাঁরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়ামের ওই প্ল্যান্টের একটি ট্যাঙ্কারে বড়সড় বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের পরই প্ল্যান্টে দাউদাউ করে আগুন জ্বলে যায়। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় প্রায় চতুর্দিক। খবর পেয়ে দমকলের বেশ কয়েকটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শুরু হয় পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার কাজ। যদিও ততক্ষণে প্রাণ বাঁচাতে হুড়োহুড়ি শুরু করে দেন কর্মীরা। তবে এই ঘটনায় ঠিক কতজন কর্মী জখম হয়েছেন বা কেউ মারা গিয়েছেন কি না, সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত সুস্পষ্ট কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: প্রাক্তন স্বামীর তৃতীয় বিয়ে শুনে রেগে আগুন, ২ স্ত্রীর জুতোপেটায় স্বপ্নভঙ্গ যুবকের]

হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম কর্তৃপক্ষের তরফে গ্যাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কার চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আপাতত ওই প্ল্যান্টের প্রায় ৫ কিলোমিটার দূর পর্যন্ত এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছে। প্ল্যান্টের আশেপাশের গ্রামগুলির বাসিন্দাদের নিরাপত্তার স্বার্থে অন্যত্র সরিয়ে ফেলা হয়েছে। রেল পরিষেবাতেও পড়েছে হিন্দুস্তান পেট্রোলিয়াম প্ল্যান্টে ট্যাঙ্কার বিস্ফোরণের প্রভাব। লখনউ-কানপুর শাখায় ব্যাহত রেল চলাচল। বিভিন্ন স্টেশনে দাঁড়িয়ে রয়েছে ঝাঁসি প্যাসেঞ্জার, উন্নাও-এলটিটি ট্রেন, উন্নাও-আজগাঁও ট্রেন। স্বাভাবিকভাবেই গন্তব্যে পৌঁছতে নাজেহাল যাত্রীরা। আবার কখন রেল পরিষেবা স্বাভাবিক হবে, সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত রেল আধিকারিকদের তরফে সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং