BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জনপ্রিয়তা কমছে মোদির, সেরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 26, 2018 3:39 am|    Updated: January 26, 2018 3:41 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অবিলম্বে লোকসভা নির্বাচন হলে কি ফের নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে এনডিএ সরকার ক্ষমতায় আসবে? তিন বছর ধরে মোদির পারফরম্যান্স কি খুশি করতে পেরেছে দেশবাসীকে? ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে মোদির বিকল্প হিসাবে সাধারণ মানুষ কাকে চাইছেন? পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী পদে আপনি কাকে দেখতে চান? এই জাতীয় একগুচ্ছ প্রশ্নের জবাব উঠে এল ইন্ডিয়া টুডে মুড অফ দ্য নেশন পোল-এ।

[প্রয়াত বাংলা চলচ্চিত্রের স্বর্ণযুগের প্রখ্যাত অভিনেত্রী সুপ্রিয়া দেবী]

সমীক্ষার ফলাফল বলছে, জনপ্রিয়তা কমলেও অর্ধেকেরও বেশি মানুষ (প্রায় ৫৩%) নরেন্দ্র মোদিকেই পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাইছেন। মাত্র ২২% মানুষ নয়া কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর উপর আস্থা দেখিয়েছেন। সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ২৮% মানুষ জানিয়েছেন, স্বাধীনতা পরবর্তী ভারতের শ্রেষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী মোদি। ২০ শতাংশের ভোট গিয়েছে ইন্দিরা গান্ধীর দিকে ও ১০% মানুষ অটল বিহারী বাজপেয়ীকে স্বাধীনোত্তর ভারতের সেরা প্রধানমন্ত্রী বলে মতপ্রকাশ করেছেন।

সমীক্ষা আরও জানাচ্ছে, অবিলম্বে ভোট হলে ৫৪৩টির মধ্যে এনডিএ-র ঝুলিতে যাবে ২৫৮টি আসন। তবে ২০১৪-র তুলনায় এনডির প্রতি মানুষের সামান্য মোহভঙ্গ হয়েছে। কারণ, সে বছর ২৮২টি আসন পায় ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স। কংগ্রেসের নেতৃত্বে ইউপিএ পেতে পারে ২০২টি আসন। ৮৩টি আসন পেতে পারে আঞ্চলিক ও অন্যান্য দলগুলি। ইভিএম হ্যাক করা সম্ভব কি না, এই প্রশ্নের উত্তরে ৪২% মানুষ ‘হ্যাঁ’ বলে জানিয়েছেন।

[জঙ্গি হামলার হাই অ্যালার্ট! সাধারণতন্ত্র দিবসে আসিয়ান নেতাদের প্রাণনাশের আশঙ্কা]

মোদি ও রাহুল গান্ধী ছাড়া কাকে মানুষ প্রধানমন্ত্রীর তখতে দেখতে চান? এই প্রশ্নের জবাবেই রয়েছে চমক। প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য সাধারণ মানুষের তৃতীয় পছন্দ প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। তিনি পেয়েছেন ৪% ভোট। ৩% ভোট পেয়ে প্রধানমন্ত্রী পদের চতুর্থ দাবিদার এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি হয়েছেন দেশের সেরা মুখ্যমন্ত্রী। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি পেয়েছেন ২% ভোট। ২% ভোট পেয়ে জেটলিকে টক্কর দিচ্ছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ ও সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব। প্রধানমন্ত্রী পদে বাছাই হিসাবে মাত্র ১% ভোট পেয়েছেন বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী।

কোন বিষয়ের উপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া উচিত আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে? এই প্রশ্নের উত্তরে একবাক্যে প্রায় সকলেই জানিয়েছেন, যুবাদের কর্মসংস্থানের উপর। সমীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ২৩% মানুষ জানিয়েছেন, মূল্যবৃদ্ধির উপর লাগাম টানাটাই মুখ্য নির্বাচনী ইস্যু হওয়া উচিত। ইস্যুর নিরিখে দুর্নীতির সঙ্গে লড়াই রয়েছে তৃতীয় স্থানে। রাম মন্দির কি নির্বাচনের অন্যতম ফ্যাক্টর হওয়া উচিত, এই প্রশ্নের জবাবে ৪৪% মানুষ হ্যাঁ বলে জানিয়েছেন। ৪৭% মানুষ জানিয়েছেন, দেশের আর্থিক উন্নয়নের জন্য মোদির কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতার জন্যই গুজরাটে জিতেছে বিজেপি।

[নেতানিয়াহুর ঘরে ঢুকলে খোলো অন্তর্বাস, হেনস্তা মহিলা সাংবাদিককে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement