BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মিলনে অক্ষম স্ত্রী, মেডিক্যাল পরীক্ষার অনুমতি হাই কোর্টের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 10, 2016 1:35 pm|    Updated: October 12, 2016 6:49 pm

Man can seek wife’s test to show they never had sex: Bombay HC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিয়ে হয়ে গিয়েছে, অথচ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোনও স্বাভাবিক যৌন সম্পর্ক তৈরি হয়নি৷ এই অবস্থায় স্বামী দাবি করলে, মেডিক্যাল টেস্টের সম্মুখীন হতে হবে স্ত্রীকে৷ মুম্বইয়ের একটি পারিবারিক আদালতের এই নির্দেশকে কার্যত মান্যতা দিল বম্বে হাই কোর্ট৷

মুম্বই ফ্যামিলি কোর্ট বা পারিবারিক আদালতে সাধারণত স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ, সন্তানের অধিকার সংক্রান্ত মামলার মীমাংসা হয়৷ ২০১১ সালে এই আদালতেই এক ব্যক্তি তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে মিলনে সক্ষম নন বলে অভিযোগ তুলে ডিভোর্সের মামলা দায়ের করেন৷ আদালত তখন মুম্বইয়ের স্যার জে জে হাসপাতালে বিশেষ মেডিক্যাল বোর্ডের তত্ত্বাবধানে অভিযুক্ত মহিলার শারীরিক ও মানসিক সক্ষমতা পরীক্ষার নির্দেশ দেয়৷ ২০১০ সালের ডিসেম্বর মাসে অভিযোগকারী ব্যক্তি ও অভিযুক্ত মহিলার বিয়ে হয়৷ দু’জনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে৷ অভিযোগকারীর বয়স ৩৮ ও অভিযুক্তের ৩৩৷ ওই ব্যক্তি আদালতকে জানান, বিয়ের পর থেকে তিনি স্ত্রীর সঙ্গে কোনওদিন মিলিত হননি৷ তাই তিনি এই প্রাতিষ্ঠানিক বন্ধন থেকে ‘মুক্তি’ চান৷ সেই মতো আদালত অভিযুক্ত মহিলা শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে অক্ষম কি না, জানতে মেডিক্যাল পরীক্ষার নির্দেশ দেয়৷ পরীক্ষার দিন এগিয়ে আসছে দেখে অভিযুক্ত মহিলা আগস্ট মাসে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন৷ মহিলার আইনজীবীর দাবি, ফ্যামিলি কোর্ট কখনই একজন মহিলাকে নির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া মেডিক্যাল পরীক্ষার নির্দেশ দিতে পারে না৷ এরই পাশাপাশি মহিলার আইনজীবী একটি বেসরকারি ক্লিনিকের ওই মহিলার নামে ইস্যু হওয়া একটি ‘ফিট’ সার্টিফিকেটও আদালতে জমা দেন৷

কিন্তু মহিলার দাবি উড়িয়ে হাই কোর্ট ওই ব্যক্তির অভিযোগ গ্রহণ করে৷ হাই কোর্ট জানিয়ে দেয়, নিম্ন আদালতে মামলা চলার সময় ওই মহিলাই স্বীকারোক্তি দিয়েছিলেন, তিনি যে কোনও মেডিক্যাল পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে যেতে প্রস্তুত৷ সুপ্রিম কোর্টের আরেক নির্দেশকে সামনে রেখে হাই কোর্টের বিচারপতি জানিয়ে দেন, অভিযুক্ত মহিলার দাবি গ্রাহ্যের মধ্যে আনা হচ্ছে না৷ ওই মামলায় ফ্যামিলি কোর্টের রায়ই বহাল থাকছে৷ মেডিক্যাল টেস্ট না করলে অভিযুক্ত আদালতের নির্দেশ অমান্যের দায়ে পড়তে পারেন৷ অভিযোগকারীর আইনজীবী রমেশ লালওয়ানি জানিয়েছেন, কোনও মামলায় প্রয়োজন পড়লে স্বামী বা স্ত্রীকে মেডিক্যাল পরীক্ষার মুখোমুখি হতে নির্দেশ দেওয়ার অধিকার রয়েছে ফ্যামিলি কোর্টের৷ সেই অধিকার দিয়েছে সুপ্রিম কোর্টই৷ এতে ব্যক্তি স্বাধীনতা খর্ব হয় না৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে