৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে অটো আটকাল পুলিশ, বাধ্য হয়ে বাবাকে কোলে নিয়ে হেঁটে বাড়ি ফিরলেন যুবক

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 16, 2020 12:42 pm|    Updated: April 16, 2020 1:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা থেকে বাঁচতে মানুষকে ঘরে থাকার বার্তা দিচ্ছে পুলিশ-প্রশাসন। জারি হয়েছে লকডাউন। কিন্তু এই লকডাউনের জেরেই মাঝেমধ্যে সমস্যায় পড়ছে জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া সাধারণ মানুষ। তারই এক নিদর্শন মিলল কেরলে। অসুস্থ বাবাকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে গিয়ে নাকানিচোবানি খেতে হল এক যুবককে। পুলিশকে বলেও লাভ হয়নি। অবশেষে ৬৫ বছরের বৃদ্ধকে কোলে তুলে বাড়ির পথে রওনা দেন যুবক।

৬৫ বছরের ওই বৃদ্ধ কেরলের কোল্লামের কুলাথুপুজা গ্রামের বাসিন্দা। বয়সজনিত সমস্যার কারণে পুনালুর তালুক হাসপাতালে বেশ কিছুদিন ধরে ভরতি ছিলেন তিনি। বুধবার তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু লকডাউনের জেরে বন্ধ যানবাহন। ফলে বাবাকে বাড়ি নিয়ে যেতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন ছেলে। এদিকে বাবার পরিস্থিতি ভাল নয় যে তিনি হেঁটে গ্রামে ফিরতে পারবেন। রাস্তাও অনেকটা। শেষে অতিকষ্টে একটি অটোরিকশা জোগাড় হয়।

[ আরও পড়ুন: লকডাউন উপেক্ষা করে প্রাতঃভ্রমণ, রাস্তার উপরেই যোগ ব্যায়াম করাল পুলিশ ]

কিন্তু কিছুটা রাস্তা আসার পরই বাদ সাধে পুলিশ। জানায়, লকডাউনের মধ্যে চলবে না অটো। যুবক বারবার পুলিশকে বোঝানোর চেষ্টা করে তাঁরা হাসপাতাল থেকে ফিরছেন। প্রমাণস্বরূপ হাসপাতালের নথিও দেখান তিনি। কিন্তু দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার নাছোড়। কোনওভাবেই অটোরিকশা ছাড়েননি তিনি। একপ্রকার বাধ্য হয়েই বাবাকে কোলে তুলে যুবক রওনা দেন গ্রামের উদ্দেশ্যে। প্রায় এক কিলোমিটার পথ এভাবেই বাবাকে কোলে নিয়ে হাঁটেন তিনি। ঘটনার ছবি নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পর তৈরি হয়েছে বিতর্ক। কেরালার রাজ্য মানবাধিকার কমিশন একটি স্বতঃপ্রণোদিত মামলা দায়ের করেছে।

লকডাউনের পরও দেশে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বাড়ছে মৃত্যুও। আতঙ্কের পরিবেশে আশার আলো দেখাচ্ছে কেরল। বুধবার পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় কেরলে নতুন করে মাত্র একজন আক্রান্ত হয়েছেন। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে এমনটা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। একইসঙ্গে এদিক টুইটে নিজের সংসদ এলাকা ওয়ানাড়ের প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। গত ১৬ দিনে সেই এলাকায় একজনও করোনা আক্রান্ত হননি। এই পরিসংখ্যানকে কুর্নিশ জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রকও।

[ আরও পড়ুন: করোনায় বৃদ্ধের মৃত্যু, নিজামুদ্দিন ফেরত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিলেন বলে দাবি পরিবারের ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement