BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘এটা হিন্দু এলাকা, জামা মসজিদ নয়’, দিওয়ালির রাতে বিরিয়ানি বিক্রেতাকে হুমকি ‘হিন্দুত্ববাদী’দের

Published by: Paramita Paul |    Posted: November 7, 2021 9:37 am|    Updated: November 7, 2021 9:37 am

Man forces Biryani Shop in Delhi to shut on Diwali, video goes viral | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিওয়ালির (Diwali) রাতে হিন্দু এলাকায় বিরিয়ানির দোকান খোলা কেন? এ নিয়ে তুলকালাম বেঁধে যায় দিল্লির (Delhi) ব্যস্ত রাস্তায়। দোকান বন্ধ না করলে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার হুমকিও দেওয়া হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে দিল্লির সন্তনগর এলাকার এই বিতর্কিত ভিডিওটি। সেই ভিডিওকে হাতিয়ার করে স্বতঃপ্রণোদিত তদন্তে নেমেছে বুরারি পুলিশ।

তিন মিনিটের ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, জনৈক ব্যক্তির সন্তনগরে একটি বিরিয়ানির (Biriyani Shop) দোকানে গিয়ে হুমকি দিচ্ছে। দোকানের বাইরে বসে থাকা কর্মীদের প্রশ্ন করা হয়েছে, “দিওয়ালির রাতে হিন্দু এলাকায় দোকান খুলে রেখেছ কেন? এটা কি মুসলিম এলাকা নাকি? দোকান খোলা রাখার অনুমতি কে দিয়েছে তোমাদের? ” যে হুমকি দিচ্ছিল ভিডিওতে তার মুখ দেখা যায়নি। স্রেফ গলা শোনা গিয়েছে। সে নিজেই ভিডিওটি রেকর্ড করেছে।

[আরও পড়ুন: Coronavirus: উদ্বেগ বাড়িয়ে দেশে একদিনে করোনার বলি ৫২৬ জন, ২৬০ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন অ্যাকটিভ কেস]

অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আরও বলতে শোনা যায়, “এটা তোমাদের এলাকা নয়। জামা মসজিদ নয়। এখানে হিন্দুরা থাকে। এটা হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা।” এমনকী, দোকানে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ভয়ও দেখানো হয়। এর পরই দেখা যায়, দোকানের কর্মীরা তড়িঘড়ি বাসনপত্র, টেবিল চেয়ার দোকানের ভিতর গুছিয়ে রাখছে। দোকান বন্ধের তোরজোর করছে। এর পরও থামেনি ওই ব্যক্তি। আশপাশে জড়ো হয়ে যাওয়া সকলের উদ্দেশে সে বলে, “এবার জাগুন আপনারা। এরা এখানে দোকান করছে। লাভ জেহাদের ফাঁদ পাতছে। আমাদের বোনেদের সেই ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করছে। প্রতিবাদ করুন।”

 

[আরও পড়ুন: TMC in Tripura: মনোনয়ন তুলে নিতে চাপ, ত্রিপুরায় তৃণমূল প্রার্থীর বাবাকে অপহরণ, কাঠগড়ায় বিজেপি]

তবে কে এই হুমকি দিচ্ছিল তা এখনও জানা যায়নি। দিল্লি পুলিশের তরফে ডিসিপি (উত্তর) সাগর সিং কালসি জানিয়েছেন, “পিসিআর ভ্যান বা ফোন করেও কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে আমরা ভিডিও সূত্রে ধরে অভিযোগ দায়ের করেছি। তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্তকে দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে। যে বা যারা এলাকার শান্তি-সম্প্রীতি নষ্টের চেষ্টা করবে, তাদের বিরুদ্ধেই আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে