BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সেনা ক্যাম্পের পাশ থেকে পাকিস্তানে ভিডিও কলের চেষ্টা, রাজস্থানে ধৃত যুবক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 10, 2019 7:24 pm|    Updated: March 10, 2019 7:24 pm

Man trying to make video call to Pakistan

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সেনা ক্যাম্পের পাশ থেকে পাকিস্তানে ভিডিও কল করতে গিয়ে ধরা পড়ল ৩৫ বছরের এক যুবক। ধৃতের নাম ফাতান খান। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জয়সলমের জেলায়। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জয়সলমের জেলার রামগড় থানার অন্তর্গত সোনু গ্রাম সংলগ্ন সেনা ক্যাম্পের সন্দেহজনক ভাবে ঘোরাঘুরি করছিল ধৃত যুবক। বিষয়টি দেখতে পেয়ে তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন ক্যাম্পের জওয়ানরা।

ধৃতের কাছ থেকে একটি স্মার্টফোন, তিন থেকে চারটি পেন ড্রাইভ ও একটি কার্ড রিডার বাজেয়াপ্ত হয়েছে। উদ্ধার হওয়া স্মার্টফোন থেকে গত ফেব্রুয়ারি মাসে পাকিস্তানে ভিডিও কল করা হয়েছিল বলেও প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। ধৃতকে জেরা করে কী কারণ সে পাকিস্তানে ভিডিও কল করছিল তা জানার চেষ্টা চলছে। ইতিমধ্যে জেরার মুখে সে তার নাম ফাতান খান ও স্থানীয় শিয়ালো কী বসতি এলাকার বাসিন্দা বলে জানিয়েছে।

[ঘোষিত লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট, ৭ দফায় ভোট]

সেনা সূত্রে জানা গেছে, তাদের কাছে লিখিত ভাবে দেওয়া মুচলেকায় ধৃত স্বীকার করেছে যে সে সেনা ক্যাম্পে বাইরে দাঁড়িয়ে পাকিস্তানে ভিডিও কল করছিল। সেনা আধিকারিকরা তাকে আরও চাপ দিলে সে ভয়ে জানায় পাকিস্তানে থাকা এক আত্মীয়কে ফোন করার চেষ্টা করছিল। কিন্তু, ফোন লাগছিল না।

[মহিলা ক্ষমতায়নে জোর, লোকসভায় ৩৩% প্রার্থী ঘোষণা বিজেডির]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সাম শিয়ালো কী বসতির বাসিন্দা ফাতান খান ওরফে ফাতিয়া এর আগে পাকিস্তানে ফোন করেছে। তার ফোনের কল ডিটেলস ঘেঁটে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি শেষ ভিডিও কল করেছিল ফাতান। পাকিস্তানের উমারকোটে তার কাকা ও অন্য আত্মীয়রা থাকে। ফাতান তাদের কাছে ঘুরতে যাওয়ার পাশাপাশি এখান থেকে ফোনে কথা বলে। ধৃতের দাবি, তার উট ও ছাগলের ব্যবসা আছে। সেই ব্যবসার সূত্রে ও আত্মীয়দের সঙ্গে কথা বলার জন্য সে মাঝে মধ্যেই পাকিস্তানে ফোন করে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে