BREAKING NEWS

১৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ৪ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফ্রিজের মধ্যে তিন টুকরো দেহ, যুবকের নৃশংস খুনে সন্দেহ বন্ধুকে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 15, 2017 4:38 am|    Updated: October 15, 2017 4:38 am

Man’s body found in fridge, cut into pieces in Mehrauli

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দক্ষিণ দিল্লির মেহরৌলিতে বারকর্মীকে নৃশংসভাবে খুন। বন্ধুর বাড়ির ফ্রিজে তিন টুকরো অবস্থায় মিলল বিপিন জোশির দেহ। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত বাদল মণ্ডল।

[ফের গো-রক্ষকদের তাণ্ডব হরিয়ানায়, ফরিদাবাদে আক্রান্ত পাঁচ]

১০ অক্টোবর থেকে নিখোঁজ ছিলেন বিপিন। ২৯ বছরের বিপিনের খোঁজে বাদলের ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন তাঁর ভাই। সেখানে পচা গন্ধ পেয়ে তাঁর সন্দেহ হয়। ১২ তারিখ পুলিশে মিসিং ডায়েরি করে বিপিনের পরিবার। পুলিশ প্রাথমিক তদন্ত বুঝতে পারে ঘটনায় বাদলের হাত থাকতে পারে। জানা গিয়েছে ১০ তারিখ দুজনকে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল। একই রেস্তোরাঁয় দুই বন্ধু কাজ করত। কিন্তু ঘটনার পর থেকে বাদলের আর খোঁজ পাওয়া যায়নি। কাজেও যায়নি দুজন। পুরুলিয়ার বাসিন্দা বাদলের মোবাইলও সুইচড অফ। পুলিশ জানতে পারে ১০ তারিখের আগে বাদল তাঁর স্ত্রী ও সন্তানকে পুরুলিয়ায় পাঠিয়ে দেয়। রবিবার সকালে বাদলের ঘর ভেঙে ঢোকে পুলিশ। তার বাড়ির ফ্রিজ থেকে বিপিনের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়। রেফ্রিজারেটরের মধ্যে তিন টুকরো অবস্থায় বিপিনের দেহ ছিল। ঘটনাস্থল থেকে ধারাল অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। দিল্লি পুলিশের আধিকারিক চিন্ময় বিসওয়াল জানান, বাদলের ঘর তালাবন্ধ ছিল। তালা ভেঙে ঢোকার পর দেখা যায় ঘরের মধ্যে রক্তের স্রোত। ফ্রিজ থেকে দুর্গন্ধ বেরোচ্ছিল। একটি কালো রঙের প্লাস্টিকের ব্যাগে দেহ টুকরো টুকরো করে কেটে রাখা হয়েছিল।

[দলিত যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক, সম্মান বাঁচাতে মেয়েকে খুন দম্পতির]

মৃতের আত্মীয় দীনেশ জোশির অভিযোগ বাদলই খুন করেছে। কারণ ঘটনার পর থেকে সে বেপাত্তা। এমনকী ৯ তারিখ বিপিনকে জোর করে মদ খাওয়ানো হয়। তারপরই এই ঘটনা। হত্যাকাণ্ডে বাদলের বিরুদ্ধে সন্দেহ ক্রমশ জোরাল হচ্ছে। পুলিশ খুনের মামলা রুজু করেছে। বাদলের খোঁজে দিল্লি পুলিশের একটি দল পুরুলিয়ায় আসছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে