BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘ওষুধ নয়, সুরাই পারে বাঁচাতে’, লকডাউন ঘোষণা হতেই দিল্লির মদের দোকানের বাইরে লম্বা লাইন

Published by: Arupkanti Bera |    Posted: April 19, 2021 5:00 pm|    Updated: April 19, 2021 5:21 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী ৬ দিন দিল্লিতে (Delhi Lockdown) লকডাউন ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। আর তার পরেই মদ কেনার হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে রাজধানীর বেশ কিছু দোকানে। যেখানে সামাজিক দূরত্বের কোনও বালাই নেই, অনেকের মুখেই নেই মাস্ক। ক্রেতাদের সেই লম্বা লাইনের ছবি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানিয়েছেন, “আজ সোমবার রাত ১০ থেকে পরের সোমবার সকাল ৫টা পর্যন্ত লকডাউন থাকবে দিল্লি। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে চিকিৎসা এবং খাদ্য সংক্রান্ত জরুরি পরিষেবা চালু থাকবে।” কিন্তু মানুষের কাছে মনে হয় খাবারের থেকেও মদের চাহিদা বেশি। ভাইরাল হওয়া ছবি ভিডিও থেকে এমনটা মনে হতেই পারে।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় সরাসরি শামিল ইন্ডিয়ান অয়েল, বিনামূল্যে যোগাচ্ছে ১৫০ মেট্রিক টন অক্সিজেন]

দিল্লির খান মার্কেট, গোলে মার্কেটের মতো এলাকায় দেখা গেল, একের পর এক মদের দোকানের সামনে কয়েকশো ক্রেতার ভিড়। এই দিন ছয়েকের মদের স্টক ঠিক রাখতে হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে। সেই লাইনে মহিলা থেকে পুরুষ কেউ পিছিয়ে নেই। এক মহিলাতো দাবি করে বলসেন, “৩৫ বছর ধরে মদ খাচ্ছি। ওষুধের প্রয়োজন হয় না। ইঞ্জেকশনে কিছু লাভ হবে না। মদেই যা লাভ হওয়ার হবে।” সংবাদ সংস্থার ক্যামেরার সামনে করা সেই মন্তব্য এখন ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

লকডাউনে কিছু গাইডলাইন ঘোষণা করেছেন কেজরিওয়াল। ওষুধ, খাবারের মতো পরিষেবা স্বাভাবিক রাখা হলেও বিয়ের মতো অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি যোগদান করতে পারবেন না। এবং তাঁদের জন্যও দিল্লি সরকার আলাদা করে পাস ইস্যু করবে। দিল্লির পরিস্থিতি দেশের সব থেকে খারাপ রাজ্যগুলির মধ্যে একটি। রবিবার দিল্লিতে নতুন করে সাড়ে ২৫ হাজার জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

[আরও পড়ুন: করোনার জন্য কালিয়াগঞ্জে সংক্ষিপ্ত সভা মমতার, সাকুল্যে ১৫ মিনিটে সারলেন বক্তব্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement